বিভিন্ন পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁস ও অর্থ পাচার মামলার আসামি অগ্রণী ব্যাংকের বরখাস্ত জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা মানিক কুমার প্রামাণিকের আগাম জামিনের আবেদন নাকচ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। 

পাশাপাশি তাকে আগামী ছয় সপ্তাহের মধ্যে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণ করতেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ মঙ্গলবার এই আদেশ দেন। আদালতে আসামির জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মোহাম্মদ হোসেন। 

রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক।

বিভিন্ন পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগে গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর মানিক কুমার প্রামাণিকসহ ছয়জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। প্রাথমিক তদন্তের পর অগ্রণী ব্যাংকের বরখাস্ত মানিক ও জনতা ব্যাংকের রকিবুল হাসান এবং দুর্নীতি দমন কমিশনের সাবেক উপপরিদর্শক মফিজুর রহমানের কোটি কোটি টাকা পাচারের তথ্য পায় পুলিশ। পরে এই তিনজনের বিরুদ্ধে চলতি বছরের ১৯ সেপ্টেম্বর রাজধানীর বাড্ডা থানায় অর্থ পাচার আইনে মামলা করা হয়।\হমানিকের বিষয়ে মামলায় বলা হয়, 'মানিক ব্যাংকে চাকরি করলেও বিশ্ববিদ্যালয় ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে অবৈধভাবে ছাত্র ভর্তি ও নিয়োগ প্রার্থীদের নিয়োগ দিয়ে অবৈধ টাকা উপার্জন করাই ছিল তার পেশা।' 

এ মামলায় গত সোমবার আগাম জামিনের জন্য হাইকোর্টে আবেদন করেছিলেন মামলার আরেক আসামি জনতা ব্যাংকের বরখাস্ত কর্মকর্তা রকিবুল হাসান। ওই আবেদনে তাকে জামিন না দিয়ে চার সপ্তাহের মধ্যে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বিষয় : প্রশ্ন ফাঁস ও অর্থ পাচার অগ্রণী ব্যাংকের বরখাস্ত মানিক কুমার প্রামাণিক

মন্তব্য করুন