ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী পাবলিক সার্ভিস অ্যাওয়ার্ড পাওয়া দেশের প্রথম প্রতিষ্ঠান হিসেবে জাতিসংঘ পাবলিক সার্ভিস অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ করেছেন।

সোমবার তিনি সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০টায় মদিনাত জুমেইরাহ সম্মেলন কেন্দ্রে সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং জাতিসংঘের অর্থনৈতিক ও সামাজিক বিষয়ক বিভাগের উদ্যোগে যৌথভাবে আয়োজিত ‘ইউনাইটেড ন্যাশনস পাবলিক সার্ভিস অ্যাওয়ার্ড’ প্রদান অনুষ্ঠানে এই পুরস্কার গ্রহণ করেন। 

এই সময় ভূমি সচিব মো. মোস্তাফিজুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় ভূমিমন্ত্রী বলেন, জাতিসংঘ পুরস্কার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ ও জাতির সম্মিলিত অর্জন। তার (প্রধানমন্ত্রী) বিশেষ উদ্যোগ ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’র অধীনে ই-নামজারি ব্যবস্থা বাস্তবায়িত হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এই অ্যাওয়ার্ড বাংলাদেশের সমগ্র ভূমি ব্যবস্থাপনাকে অটোমেটশন করার উদ্যোগকে আরও প্রাণবন্তভাবে সম্পন্ন করতে উৎসাহিত করবে।

ভূমিসেবা গ্রহীতাদের সহজে সেবা প্রদানে, নারী ও প্রতিবন্ধীদের ভূমি ব্যবস্থাপনায় অধিকতর অন্তর্ভুক্ত করতে, বাংলাদেশের টেকসই উন্নয়নের অভীষ্ট লক্ষ্য বাস্তবায়নে, সর্বোপরি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গৃহীত রূপকল্প-২০৪১ বাস্তবায়নে ই-নামজারি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। 

অনুষ্ঠানটি ১৩ থেকে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত ‘আগামীর জনসেবা উদ্ভাবন: টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট অর্জনে নব যুগের জন্য নতুন সরকারী মডেল’ প্রতিপাদ্যে তিন দিনব্যাপী আয়োজিত ‘ইউনাইটেড ন্যাশনস পাবলিক সার্ভিস ফোরাম’-এর একটি অংশ।

অনুষ্ঠানে সংযুক্ত আরব আমিরাতের মন্ত্রিপরিষদ বিষয়ক মন্ত্রী মোহাম্মদ আল গেরগাওয়ি, রাষ্ট্রীয় উন্নয়ন ও ভবিষ্যৎ প্রতিমন্ত্রী ওহুদ আল রুমি, জাতিসংঘের ম্যানেজমেন্ট, পলিসি, স্ট্র্যাটেজি ও কমপ্লায়েন্স বিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল ক্যাথরিন পোলার্ডসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নেতৃবৃন্দ, মন্ত্রী, ঊর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তা, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, গবেষক, বেসরকারি খাত এবং আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক সংস্থার প্রতিনিধিরা এবং পুরস্কার বিজয়ী বিভিন্ন উদ্যোগের উদ্যোক্তারা উপস্থিত ছিলেন।