নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের তহবিল লোপাটের অভিযোগে প্রতিষ্ঠানের ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য এম এ কাশেম ও মোহাম্মদ শাহজাহানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। 

দুদক উপপরিচালক মোহাম্মদ ফয়সাল স্বাক্ষরিত নোটিশে তাদের আগামী ২ জানুয়ারি সকাল ১০টায় রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দুর্নীতি দমন কমিশনের প্রধান কার্যালয়ে হাজির হতে বলা হয়েছে। 

তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ সম্পর্কে নোটিশে বলা হয়, তাদের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায়, ব্যাংকে এফডিআর করার নামে প্রতিষ্ঠানের অর্থ লোপাট, বিশ্ববিদ্যালয়ে স্ত্রী-স্বজনদের চাকরি দেওয়ার নামে অনৈতিকভাবে লাখ লাখ টাকা হানিয়ে নেওয়া, সরকারি শুল্ক ফাঁকি দিয়ে গাড়ি ক্রয়, অবৈধভাবে বিলাসবহুল গাড়ি ব্যবহার ও বিভিন্ন অনৈতিক সুযোগ-সুবিধা গ্রহণের আড়ালে বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ রয়েছে।

সূত্র জানায়, ওইসব অভিযোগ সম্পর্কে তাদের বক্তব্য শ্রবণ ও রেকর্ড করা হবে। নির্ধারিত সময়ে হাজির হয়ে বক্তব্য প্রদানে ব্যর্থ হলে সংশ্লিষ্ট অভিযোগ সম্পর্কে তাদের কোনো বক্তব্য নেই বলে গণ্য করা হবে। একই সঙ্গে দুদককে অসহযোগিতার অভিযোগে উভয়ের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জানা গেছে, কমিশন অভিযোগটির অনুসন্ধান সংক্রান্ত আদেশ জারি করেছে গত ২৮ অক্টোবর। 

এই আদেশে বলা হয়, ট্রাস্টি বোর্ডের ওই দুই সদস্যের বাইরে সংশ্লিষ্ট অন্যদের বিরুদ্ধেও অনিয়ম, দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে। যথাসময়ে অভিযোগটির অনুসন্ধান শেষ করে কমিশনে প্রতিবেদন পেশ করার জন্য আদেশে বলা হয়েছে।

দুদক উপপরিচালক মোহাম্মদ ফয়সালের নেতৃত্বে একটি বিশেষ টিম অভিযোগটি অনুসন্ধান করছে। কমিশনের বিশেষ অনুসন্ধান ও তদন্ত বিভাগ-২ এর পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেনকে তদারকি কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।