ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের চতুর্থ ধাপে দেশের বিভিন্ন স্থানে ধারাবাহিক সহিংসতার খবর পাওয়া গেলেও ইসি সচিব হুমায়ুন কবীর খোন্দকার দাবি করেছেন, আনন্দমুখর পরিবেশে মানুষ ভোট দিয়েছে। 

রোববার সারাদিন তিনি ভোটের খোঁজখবর নিয়েছেন-দাবি করে ইসি সচিব বলেন, ‘সব মিলিয়ে এ নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে, আনন্দমুখর পরিবেশে ভোট হয়েছে, জনগণের সম্পৃক্ততা ছিল, তাই ভোটারদের উপস্থিতি ৭০ শতাংশের বেশি হবে।’

রোববার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের মিডিয়া সেন্টারে চতুর্থ ধাপের নির্বাচন শেষে সংবাদ সম্মেলনে ইসি সচিব এই দাবি করেন।

ইসি সচিব বলেন, চতুর্থ ধাপে মোট ৮৩৬টি ইউনিয়নে ভোট অনুষ্ঠিত হয়েছে। এরইমধ্যে ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে, এখন কাউন্টিং চলছে। প্রিসাইডিং অফিসারদের নিয়ন্ত্রণের বাইরে নির্বাচন চলে যাওয়ায় কারণে ১৫টি কেন্দ্রের ভোট স্থগিত করা হয়েছে। মোট ভোট কেন্দ্র ছিল ৯ হাজার ২২৪টি। সেই হিসেবে ভোট কেন্দ্রের তুলনায় স্থ্থগিত ভোটকেন্দ্রের হার শূন্য দশমিক ১৬ শতাংশ।

ভোট চলাকালে প্রার্থীদের সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় ২৯ জন আহত হয়েছেন। এসময় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে ৬৩ জন আটক হয়েছে। ৫ জনকে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট জরিমানা করেছে। 

এ পর্যন্ত চার ধাপের ভোটের মধ্যে তুলনামূলক কোন ধাপকে ইসি সবচেয়ে সুষ্ঠু বলে মনে করছে-এমন প্রশ্নের জবাবে ইসি সচিব বলেন, ‘এক কথায় বলা যায়, সবসময়ই ভোটারদের উপস্থিতি আশাব্যঞ্জক ছিল। সার্বিকভাবে প্রতিটি ধাপেই নির্বাচন খুব ভালো হয়েছে। সামনের দিকে নির্বাচন আরও ভালো হবে।’  

চতুর্থ ধাপ শেষে পঞ্চম ধাপে ৭০৭ ইউপিতে ৫ জানুয়ারি ভোট হবে। এরপর ৬ষ্ঠ ধাপে ৩১ জানুয়ারি ভোট হবে ২১৯ ইউপিতে।