বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক বলেছেন, 'রাষ্ট্রপতির সংলাপ আয়োজন বা তার কাঁধে ভর করে বিদ্যমান রাজনৈতিক গভীর সংকট থেকে বেরিয়ে আসা যাবে না। সংকটের সমাধান চাইলে সরকার ও সরকারি দলকে রাজনৈতিক উদ্যোগ নিতে হবে।'

বুধবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা মহানগর কমিটির সম্পাদকমণ্ডলীর সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

সাইফুল হক বলেন, 'সরকারকে বিরোধী দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা করেই নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনের আইনি কাঠামো তৈরি করতে হবে। আর সরকারের পদত্যাগ ও জাতীয় নির্বাচনকালীন 'নিরপেক্ষ তদারকি সরকার' গঠনসহ প্রাসঙ্গিক বিষয়ে প্রয়োজনীয় সমঝোতা ও সিদ্ধান্ত নিতে হবে।'

তিনি বলেন, 'গণসংগ্রামের ধারায় সরকারকে পিছু হটাতে না পারলে ভোটের অধিকার, নিরপেক্ষ কার্যকর নির্বাচন কমিশন ও নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ তদারকি সরকার- কোনো কিছুই অর্জন করা যাবে না। শুধু দাবি-দাওয়া পেশ করে জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রতিষ্ঠা করা যাবে না। অধিকার ও মুক্তি অর্জনে জনগণের পুঞ্জীভূত ক্ষোভকে গণপ্রতিরোধ আর গণজাগরণে রূপ দিতে হবে। ২০১৮ সালের 'ভোট ডাকাতির' প্রতিবাদে আজ ৩০ ডিসেম্বরকে 'কালো দিবস' পালনের আহ্বান জানান সাইফুল হক।'

বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির ঢাকা মহানগর কমিটির সভাপতি আকবর খানের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য দেন মহানগর কমিটির সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন মোশতাক, কামরুজ্জামান ফিরোজ, আবুল কালাম, মোহা. সালাউদ্দিন ও জোনায়েত হোসেন।