ঢাকা সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪

বছরে আয় করেন চার কোটি ১৭ লাখ টাকা

১১৮ কোটি টাকার সম্পদের মালিক মন্ত্রী তাজুল ইসলাম

হলফনামার তথ্য

১১৮ কোটি টাকার সম্পদের মালিক মন্ত্রী তাজুল ইসলাম

তাজুল ইসলাম

 কামাল উদ্দিন, কুমিল্লা 

প্রকাশ: ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | ০০:৫১ | আপডেট: ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | ০৯:১২

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম ১১৮ কোটি ৬৯ লাখ টাকার সম্পদের মালিক। বছরে চার কোটি টাকার বেশি আয় করেন তিনি। কুমিল্লা-৯ (লাকসাম ও মনোহরগঞ্জ) আসনে তিনি তিনবারের সংসদ সদস্য। এবারও এ আসনে নৌকার প্রার্থী। জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে জমা দেওয়া হলফনামা থেকে তাঁর সম্পদের এ তথ্য পাওয়া যায়। 

কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি তাজুল ইসলাম হলফনামায় উল্লেখ করেছেন, তিনি এমবিএ পাস। সম্পদ যা রয়েছে সবই তাঁর নিজের; স্ত্রী ও নির্ভরশীলদের নামে কিছু নেই। তাঁর হাতে এবার নগদ আছে ৮ লাখ ৫২ হাজার ৭৭০ টাকা, আর আগের নির্বাচনের সময় ছিল ১ কোটি ৩১ লাখ ১৩ হাজার টাকা। একাদশ সংসদ নির্বাচনের সময় বছরে ১৬ লাখ ৩৩ হাজার টাকা আয় করলেও এখন আয় করেন ৪ কোটি ১৭ লাখ ৭২ হাজার টাকা। এর মধ্যে শেয়ার, সঞ্চয়পত্র, ব্যাংক আমানত থেকে আসে ১ কোটি ৬৩ লাখ ৮৯ হাজার টাকা, ব্যবসা থেকে ১৪ লাখ ২৪ হাজার, কৃষি থেকে ৩ লাখ ৩৫ হাজার এবং বাড়ি/অ্যাপার্টমেন্ট ভাড়া থেকে ১ কোটি ৬৯ লাখ টাকা আয় করেন তিনি। এ ছাড়া সংসদ সদস্য ভাতা পেয়েছেন ১৫ লাখ ৫৯ হাজার ও পোলট্রি খাত থেকে আয় করেন ৫১ লাখ ৬৩ হাজার টাকা। 

মন্ত্রী তাজুল ইসলামের অস্থাবর সম্পদ রয়েছে ৯৭ কোটি ১৩ লাখ ৩ হাজার টাকার। এর মধ্যে ৮ কোটি টাকার রয়েছে বন্ড। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে শেয়ার রয়েছে ৫ কোটি ২৩ লাখ ১১ হাজার টাকার। তাঁর স্বর্ণালংকার রয়েছে ১ লাখ ৪ হাজার টাকার, যা তাঁর স্ত্রীর নয়। তাঁর বাস, ট্রাক ও মোটরগাড়ি রয়েছে ৩ কোটি ৬৬ লাখ ৯৮ হাজার টাকার। এর বাইরে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে জমা রয়েছে ১ কোটি ২৩ লাখ ১৫ হাজার ৭৫৮ টাকা। পোস্টাল, সেভিংস, সঞ্চয়পত্র আছে ৬ কোটি ৭৩ লাখ ৬৪ হাজার টাকার। ইলেকট্রনিক সামগ্রী রয়েছে ৬ লাখ ৫০ হাজার টাকার। 

এ ছাড়া তাঁর স্থাবর সম্পদ রয়েছে ২১ কোটি ৫৬ লাখ ৩৫ হাজার টাকার। এর মধ্যে কৃষিজমি ১ কোটি ৫১ লাখ ৫৯ হাজার ৯৫২ টাকার এবং আবাসিক-অনাবাসিক দালান ২০ কোটি ৪ লাখ ৭৫ হাজার টাকার। স্থাবর-অস্থাবর মিলিয়ে ১১৮ কোটি ৬৯ লাখ ৩৮ হাজার টাকার মালিক তিনি। এর বাইরে বাড়ি ভাড়া বাবদ অগ্রিম নেওয়া ৪ কোটি ৯ লাখ টাকা রয়েছে তাঁর, যা ফেরতযোগ্য এবং দায়-দেনা হিসেবে হলফনামায় দেখানো হয়েছে। 


 

আরও পড়ুন

×