ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

পরিবেশ বান্ধব উপায়ে নিরাপদ কলা চাষে সফলতা

পরিবেশ বান্ধব উপায়ে নিরাপদ কলা চাষে সফলতা

ছবি: সংগৃহীত

সমকাল প্রতিবেদক

প্রকাশ: ১০ ডিসেম্বর ২০২৩ | ১০:২০

বগুড়ার শিবগঞ্জ এবং জয়পুরহাটের জামালগঞ্জে বিশ্বব্যাংক ও পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশনের (পিকেএসএফ) আর্থিক সহযোগিতায় ‘সাসটেইনেবল এন্টারপ্রাইজ প্রজেক্ট (এসইপি)’ প্রকল্পের আওতায় টিএমএসএস ‘পরিবেশ বান্ধব উপায়ে নিরাপদ কলা চাষ’ শীর্ষক একটি উপ-প্রকল্প বাস্তবায়ন করে আসছে। এর আওতায় উদ্যোক্তাদের দক্ষতা, পরিবেশ ও ব্যবসায়িক উন্নয়ন বিষয়ক প্রশিক্ষণ, কারিগরি সহায়তা, মাটি পরীক্ষা করে সার প্রয়োগের মাধ্যমে কলার প্রদর্শনী প্লট স্থাপন এবং ব্যাগিং পদ্ধতিতে নতুন জাতের টিস্যু কালচার চারা (জি-৯) চাষ করানো হচ্ছে- যা অধিক ফলনশীল এবং পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ।

মাটি, পানি ও বায়ু দূষণ রোধে কলার বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য কমিউনিটি ও মার্কেট পর্যায়ে ওয়েস্ট কালেকশন পয়েন্ট স্থাপন করা হয়েছে- যাতে করে পরিত্যক্ত কলাগাছ যত্রতত্র না ফেলে কলাচাষীরা এসব পয়েন্টে জমা রাখতে পারেন। পরে বর্জ্য পঁচে জৈব সারে রুপান্তরিত হলে চাষীরা সেগুলো জমিতে ব্যবহার করেন।

শিবগঞ্জ অঞ্চলে পরিত্যক্ত কলার গাছ এখন আর ফেলনা নয়, যা থেকে ফাইবার (আঁশ) তৈরি করে বিভিন্ন হস্তশিল্পে (টেবিল ম্যাট, কলমদানি, গ্যাস ঢাকনা) কাজে লাগিয়ে স্থানীয় বাজারে বিক্রিসহ দেশের বাইরে রপ্তানি করার পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

উপ-প্রকল্পটির ফলে প্রান্তিক পর্যায়ে নতুন কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। এসইপি (কলাচাষ) উপ-প্রকল্পটি জিরো ওয়েস্ট প্রজেক্ট হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে।

প্রজেক্ট ম্যানেজার কৃষিবিদ মো. ইসতিয়াক ইসলাম বলেন, ‘এরই মধ্যে প্রকল্প এলাকায় ৪৫ জন চাষী জি-৯ কলা চাষের আওতায় এসেছেন। প্রকল্পের কর্মকর্তাদের সহযোগিতায় কম খরচে বাল্ক পরিমাণ নিরাপদ কলা উৎপাদন করে উচ্চতর বাজারে প্রবেশের মাধ্যমে কৃষকেরা অধিক লাভবান হতে পারবে বলে আমাদের বিশ্বাস।’

আরও পড়ুন

×