করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় বুধবার থেকে সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগ ও হাইকোর্ট বিভাগের বিচারিক কার্যক্রম ভার্চুয়ালি পরিচালিত হচ্ছে।

এদিন সকাল ৯টা থেকে আপিল বিভাগে ভার্চুয়ালি বিচারকাজ শুরু হয়। বেলা সাড়ে ১০ টার পর থেকে হাইকোর্টের বেঞ্চগুলোতে বিচারিক কার্যক্রম ভার্চুয়ালি শুরু হয়েছে। সকাল ৯টায় প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বে আপিল বিভাগে বিচারিক কার্যক্রম শুরু হয়।

করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগ ও হাইকোর্ট বিভাগের বিচারিক কার্যক্রম ভার্চুয়ালি পরিচালনার সিদ্ধান্ত নেয় সুপ্রিমকোর্ট প্রশাসন। এ বিষয়ে মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতির আদেশক্রমে সুপ্রিমকোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবর স্বাক্ষরিত পৃথক বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, করোনা সংক্রমণজনিত উদ্ভূত পরিস্থিতির কারণে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার আইন-২০২০ অনুযায়ী এবং এ সংক্রান্ত ইতোপূর্বে জারি করা প্রাকটিশ ডাইরেকশন অনুসরণ করে আপিল বিভাগে এবং হাইকোর্ট বিভাগের সকল বেঞ্চে কাল ১৯ জানুয়ারি থেকে ভার্চুয়ালি বিচারিক কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

 তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে করোনা সংক্রমণজনিত পরিস্থিতির কারণে এর আগেও সুপ্রিমকোর্টের উভয় বিভাগের বিচারিক কার্যক্রম ভার্চুয়ালি পরিচালিত হয়েছে। মাঝে করোনা সংক্রমণ কমে আসায় সুপ্রিমকোর্টের বিচারিক কার্যক্রম পর্যায়ক্রমে  স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসে। এখন করোনা সংক্রমণ ফের বৃদ্ধি পাওয়ায় সুপ্রিমকোর্টের বিচারিক কার্যক্রম ভার্চুয়ালি পরিচালনার জন্য সিদ্ধান্ত নিলেন সুপ্রিমকোর্ট প্রশাসন।