এসএসসি ও সমমানের পুনর্নিরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। শুক্রবার প্রকাশিত এ ফলাফলে দেখা গেছে, ঢাকা শিক্ষা বোর্ডে ফেল থেকে পাস করেছে ৪৩ জন শিক্ষার্থী। নতুন জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৬ জন। আর ফেল থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছে চারজন পরীক্ষার্থী।

ঢাকা বোর্ডের প্রায় ১৮ হাজার শিক্ষার্থী ২২ হাজার ৮৫৫টি বিষয়ের খাতা পুনর্নিরীক্ষার আবেদন করেছিল।

করোনার কারণে দেড় বছর ক্লাস না হওয়ায় গত বছর এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা নেওয়া হয় তিনটি নৈর্বাচনিক বিষয়ে। এরপর গত ৩০ ডিসেম্বর এসএসসি ও সমমানেন পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়। পর দিন ৩১ ডিসেম্বর থেকে পুনর্নিরীক্ষার আবেদন শুরু হয়, যা শেষ হয় গত ৬ জানুয়ারি।

ফল প্রকাশের দিনের হিসেব অনুযায়ী, এ বছর নয়টি সাধারণ শিক্ষাবোর্ড, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষাবোর্ড মিলে পাসের হার ৯৩ দশমিক ৫৮ শতাংশ, যা এ যাবৎকালে সর্বোচ্চ। ২০২০ শিক্ষাবর্ষে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় পাসের হার ছিল ৮২ দশমিক ৮৭ শতাংশ। সে হিসেবে এবার পাসের হার বেড়েছে ১০ দশমিক ৭১ শতাংশ।

নয়টি সাধারণ শিক্ষাবোর্ডে এবার পাসের হার ৯৪.০৮ শতাংশ। মোট পরীক্ষার্থী ছিল ১৭ লাখ ৯২ হাজার ৩১২ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে এক লাখ ৬২ হাজার ৬২৫ জন।

মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডে এবার পাসের হার ৯৩.২২ শতাংশ। মোট পরীক্ষার্থী ছিল দুই লাখ ৯২ হাজার ৫৬৯ জন। জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থী ১৪ হাজার ৩১৩ জন।

আর কারিগরি শিক্ষাবোর্ডে এক লাখ ৫৫ হাজার ৫১৪ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাসের হার ৮৮.৪৯ শতাংশ। জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থী পাঁচ হাজার ১৮৭ জন।