বিয়ে হয়েছে  ২০২১ সালের ১৭ অক্টোবর। সে বিয়েতে বর-বধু সাঁজা হয়নি তাদের। হয়নি বিয়ের তেমন আনুষ্ঠানিকতাও। ঘটা করে কাউকে জানানোও হয়নি। বিয়ের খবরের আগেই  মা-বাবা হচ্ছেন সে সুখবর জানান পরীমণি ও শরিফুল রাজ। 

তাই বিয়েটা আবার নতুন করে করলেন পরি-রাজ। বিয়ের আগে শুক্রবার  হয় তাদের হলুদ সন্ধ্যা। আর আজ বর-বধু সেজে বসলেন বিয়ের পিঁড়িতে। 

গিয়াস উদ্দিন সেলিমের ‘গুনিন’ ছবি করতে গিয়ে দুজনের পরিচয়। তারপর প্রেম। এরপর বিয়ে। সমকালের এক সাক্ষাৎকারে পরীমণি জানিয়েছিলেন এমনটিই।  সে সময় পরী জানিয়েছিলেন মাত্র সাত দিনের পরিচয়ে শরিফুল রাজকে বিয়ে করেন তিনি। বিয়ের আগে  দুই পরিবারকেই জানিয়েছিলেন। এরপর পারিবারিকভাবে রাজের আফতাবনগরের বাসায় তাদের বিয়ে হয়।

সে বিয়ে এবং আজকের বিয়ে নিয়ে পরীমণির ভাষ্য, ​সেদিন আমাদের বিয়েটা অনেকটা পুতুলের বিয়ের মতো হয়েছে। ছিলো না কোনো আনুষ্ঠানিকতা, আমার আর রাজের পরিবারের সদস্যদের অনেকেই তো জানতেনই না।  আমরাও বর-বধু তেমন করে সাঁজা হয়নি। তাই  তাই নতুন করে আনুষ্ঠানিকভাবে আমাদের বর-বধু সাঁজতে হলো।’

তবে পরীমণি জন্মদিনের আয়োজন যেভাবে করেন তারি ধারের কাছেও কিন্তু বিয়ের আয়োজন করলেন না।  খুব বেশি অতিথী রাখেননি দ্বিতীয়বারের এ বিয়ের আয়োজন। দুইপরিবার মিলে ২০-থেকে ২৫ জনের মতো লোক হাজির ছিলেন বলেই জানা গেছে। এরমধ্যে নির্মাতা গিয়াস উদ্দিন সেলিম,  চয়নিকা চৌধুরীসহ পরীমণির কাছের বেশ ক’জন নির্মাতা।

বিয়ের আয়োজন নিয়ে অভিনেতা শরিফুল রাজ বলেন,  ‘বিয়ে নিয়ে মানুষের বিভিন্ন পরিকল্পনা থাকে; বলতে গেল সেই পরিকল্পনার বাস্তবায়ন হচ্ছে আজ। আগের বিয়েতে (১৭ অক্টোবর) আমরা আয়োজন করে ছবি তুলতে পারিনি, আজ ছবি তুলতে বিয়ে করছি; এভাবেও বলা যায় (হাসি)।’

পরীমণি ঢাকাই ছবির আলোচিত নায়িকা হলেও র‍্যাম্প মডেল দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করা শরিফুল রাজ গেল বছর আলোচনায় আসেন ‘নেটওয়ার্কের বাইরে’ ওয়েব ফিল্মে কাজ করে। তার প্রথম সিনেমা ‘আইসক্রিম’। এর কাজ করেছেন ‘ন ডরাই’ সিনেমায়। মুক্তির অপেক্ষায় আছে ‘হাওয়া’, ‘পরাণ’, ‘রক্তজবা’ ও ‘দামাল’—এ চার সিনেমা।