ভূমিহীনদের জন্য সরকারের নেওয়া গুচ্ছগ্রাম প্রকল্পের টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় গাইবান্ধা সদর উপজেলার সাবেক ইউএনও শফিকুর রহমানের পদাবনতি হয়েছে। তাকে ষষ্ঠ গ্রেড থেকে সপ্তম গ্রেডে অবনমন করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। একই সঙ্গে আত্মসাৎ করা পুরো টাকা তার বেতন-ভাতা থেকে পরিশোধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে গত সপ্তাহে এ ব্যাপারে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

শফিকুর বর্তমানে স্থানীয় সরকার বিভাগে ন্যস্ত আছেন। প্রশাসন ক্যাডারের ২৮তম ব্যাচের এই কর্মকর্তা ২০১৮ সালের এপ্রিল থেকে অক্টোবর পর্যন্ত সেখানে ইউএনওর দায়িত্ব পালন করেন। ওই সময় তিনি গুচ্ছগ্রাম প্রকল্পের ৪৩ লাখ ৩৩ হাজার টাকা আত্মসাৎ করেন। ২০১৮-১৯ অর্থবছরে গুচ্ছগ্রাম প্রকল্পের আওতায় ওই উপজেলার জন্য বরাদ্দ করা হয়েছিল প্রায় সাড়ে পাঁচ কোটি টাকা।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা বলছেন, শফিকুরের বিরুদ্ধে অদক্ষতা, অসদাচরণ ও দুর্নীতিপরায়ণতার অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় তাকে শাস্তির আওতায় আনা হয়েছে। 

সরকারি কর্মচারী বিধিমালা অনুযায়ী, এখন তাকে দুই বছর সপ্তম গ্রেডে থাকতে হবে। দুই বছর পর আবার তিনি আগের পদ ফিরে পাবেন। তবে তিনি বকেয়া টাকা পাবেন না।