বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মান পর্বের শেষ দিনটি ব্যতিক্রমভাবে উদযাপন খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুয়েট) শিক্ষার্থীদের একটি রীতি হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিভিন্ন সাজে নেচে গেয়ে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের দিবসটি উদযাপনের ছবি আগেও ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। এবার নজর কেড়েছে যন্ত্রকৌশল বিভাগের ১৬ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের উদযাপন।

রোববার সম্মান পর্বের শেষ দিনটি কয়েদি সেজে উদযাপন করেন শিক্ষার্থীরা। যদিও এমন উদযাপন নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা চলছে।

ব্যতিক্রমী এ আয়োজনে ‘কারার ঐ লৌহকপাট, ভেঙ্গে ফেল, কর রে লোপাট’সহ বিভিন্ন কবিতা-গান কবিতায় মেতে ছিলেন শিক্ষার্থীরা। এসবের তালে নেচে-গেয়ে করেছেন উল্লাস। ইতোমধ্যে আয়োজনের ছবি ও গান ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

শিক্ষার্থীরা জানান, করোনা আমাদের বন্দি করে ফেলেছে। ক্যাম্পাসে থাকলেও একরকম বন্দি জীবন কাটাচ্ছিলাম আমরা সবাই। রোববার আমাদের শেষ ক্লাস হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনা আমাদের শেষ ক্লাসটিও হতে দেয়নি। এজন্য প্রতীকী কয়েদি সেজে শেষ দিনটি উদযাপন করেছি।

আয়োজকরা জানান, রোববার সারাদিনই ক্যাম্পাসে কয়েদি সেজে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেন তারা। এর মধ্যে ছিল কয়েদিদের শোভাযাত্রা, জেলার সেজে ঘণ্টা বাজিয়ে কয়েদির মতো লাইনে দাঁড়িয়ে থালা হাতে খাবার খাওয়া, মোরগ লড়াই, হা-ডু-ডু আর কারামুক্তি ফুটবল টুর্নামেন্ট। এর পর কেক কাটা ও নাচের আয়োজন করা হয়। 

এর আগে গত বছর অ্যারাবিয়ান পোশাক পরে শিক্ষাজীবনের শেষ দিন উদযাপন করেন কুয়েটের কম্পিউটার সায়েন্স ও ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ১৫ ব্যাচের শিক্ষার্থীরা। এই উদযাপনও নানা আলোচনার জন্ম দিয়েছিল।