বিএনপিদলীয় সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানা বলেছেন, দেশে জাতীয় নির্বাচন থেকে ইউপি নির্বাচন পর্যন্ত সব নির্বাচন কারচুপির মহোৎসবে পরিণত হয়েছে। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি ১৯৯৬ সালে যেমন ছিল তার চেয়ে এর ডিমান্ড এখন অনেক বেশি। বৃহস্পতিবার সংসদ অধিবেশনে তিনি এ কথা বলেন। 

তিনি বলেন, মাগুরা উপনির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগের পর তত্বাবধায়ক সরকারের জন্য যে আন্দোলন হয়েছিল তার চেয়ে আরও অনেক বড় আন্দোলন এখন দরকার হয়েছে পড়েছে। তত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া আর কোনো নির্বাচন গ্রহণযোগ্য নয় দেশে। 

রুমিন ফারহানা বলেন, মাগুরা নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ তুলে আওয়ামী লীগ নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের দাবি তুলেছিল এবং ১৭৬ দিন হরতাল করেছিল। আওয়ামী লীগের ওই নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের দাবি যৌক্তিক ছিল। তখন তারা স্বতন্ত্র স্বাধীন সরকারের দাবি তোলেনি। ঠিক তেমনিভাবে এখন এতগুলো নির্বাচনের পর এটি প্রমাণিত হয়েছে যে, নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকার ছাড়া অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়। 

তিনি অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগ যদি মাগুরা নির্বাচন নিয়ে ১৭৬ দিন হরতাল করতে পারে তাহলে এখন যে নির্বাচনগুলো হচ্ছে তার প্রেক্ষিতে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের কোনো বিকল্প আছে কিনা? অবাধ সুষ্ঠ নির্বাচনের জন্য তত্ত্বাবধায়ক সরকারের বিকল্প নাই।   

এর আগে নির্বাচন কমিশন গঠন আইনের বিল পাসের জন্য সংসদে প্রস্তাব আনেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। সেই বিলের ওপর আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন। 

বিষয় : সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানা

মন্তব্য করুন