সৌদি আরবের জেদ্দা বিমানবন্দরে অবৈধ স্বর্ণ ও মুদ্রাসহ পুলিশের হাতে আটক হওয়া বাংলাদেশ বিমানের কেবিন ক্রু রুহুল আমিনকে (শুভ) চাকুরি থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের মহাব্যবস্থাপক জনসংযোগ তাহেরা খন্দকার সমকালকে জানান, জেদ্দা বিমানবন্দরে অবৈধ স্বর্ণ ও মুদ্রাসহ আটক ঘটনায় বিমানের কেবিন ক্রু রুহুল আমিনকে (শুভ) চাকরি থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়। তার বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে। 

তিনি বলেন, ‘বিমানে চাকরি করে অনিয়ম দুর্নীতি করার সুযোগ নেই।’ 

বিমানের কয়েকজন কর্মকর্তা জানান, সম্প্রতি ঢাকাসহ আন্তর্জাতিক বিভিন্ন বিমানবন্দরে স্বর্ণ ও মুদ্রা পাচারসহ নানা অনিয়ম দুর্নীতির ঘটনায় প্রায় অর্ধশত বিমান কর্মীর বিরুদ্ধে তদন্ত অব্যাহত রয়েছে।

অবৈধ স্বর্ণ ও মুদ্রাসহ সৌদি আরবের জেদ্দা বিমানবন্দর পুলিশের হাতে আটক কেবিন ক্রু রুহুল আমিন (শুভ) বৃহস্পতিবার বিকেলে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান।

শুভ আটক হওয়ার পর অভিযোগ উঠেছে, বিমানের আন্তর্জাতিক ফ্লাইটে দায়িত্ব পালনের নামে অসাধু কজন কেবিনক্রু কর্মী পাচারের উদ্দেশ্যে বিদেশ থেকে লাগেজে অবৈধ স্বর্ণ ও মুদ্রা বহন করছে।

গত মঙ্গলবার ফ্লাইট সিডিউল অনুযায়ী রাত দেড়টায় জেদ্দা বিমানবন্দর থেকে ১৮০ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায় বিমানের বিজি-৪০৩৬ নম্বর একটি ফ্লাইট। নিয়ম অনুযায়ী ফ্লাইট ছাড়ার প্রায় পৌনে ১ ঘন্টা আগে ফ্লাইটে অবস্থান করার কথা ছিল পাইলটসহ কেবিনক্রু কর্মীদের। 

সব আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পাইলট ও কেবিন ক্রুসহ অন্যান্য কর্মীদের ফ্লাইটে অবস্থান করতে বিমানবন্দরের তাদের জন্য রয়েছে পৃথক নিরাপত্তা গেট। 

জেদ্দা বিমানবন্দরে নিরাপত্তা গেট দিয়ে প্রবেশ করার সময় রুহুল আমিন শুভর লাগেজে স্বর্ণসহ অবৈধ পণ্যের উপস্থিতি ধরা পড়ে। তাকে আটক করে জেদ্দার পুলিশ। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে ওই কেবিন ক্রুকে রেখে ফ্লাইট নিয়ে পরদিন বুধবার ঢাকায় চলে আসেন বিমানের কর্তব্যরত পাইলট।

শুভ এ বিষয়ে সমকালকে বলেন, ‘জেদ্দা বিমানবন্দরে একই সঙ্গে বিমানের ফ্লাইটে ওঠার সময় বাংলাদেশের মুন্সীগঞ্জ জেলার বাসিন্দা সজীব ব্যাপারী নামে এক যাত্রীর লাগেজে বিপুল পরিমান স্বর্ণ জব্দ করে জেদ্দা বিমানবন্দর পুলিশ। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে তাকে (আমাকে ) আটক করে পুলিশ।’

শুভ দাবি করেন, ‘সজীব ব্যাপারী সৌদি পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। তিনটি স্বর্ণের চেইন ছাড়া আমার কাছে আর কোনো কিছু ছিল না।’

এদিকে প্রায় ৪ কেজি চোরাই স্বর্ণবারসহ বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের কর্মী খলিলুর রহমান ও যাত্রী কামাল উদ্দিনকে আটক করে এপিবিএন পুলিশ। পুলিশের দাবি, স্বর্ণবারগুলোর বাজার মুল্য প্রায় ২ কোটি ২৫ লাখ টাকা। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে বিমানবন্দর থানায় মামলা করেছে পুলিশ।