সকাল থেকেই মেঘলা ছিল রাজধানী ঢাকার আকাশ, আর দুপুরের দিকে শুরু হয় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি। এ ছাড়া মেহেরপুর, চুয়াডাঙ্গা ও কুষ্টিয়া জেলায় বৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ আব্দুল মান্নান।

আবহাওয়া অধিদপ্তর বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়ার মধ্যে বৃহস্পতিবার সকাল ৮ টা থেকে দেশের তিন জেলায় এবং ঢাকায় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি শুরু হয় দুপুরের দিকে।

আব্দুল মান্নান জানান, যেহেতু ঠাণ্ডা ও ভারি বায়ু উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে দক্ষিণ-পূর্ব দিকে প্রবাহিত হচ্ছে তার কারণে রাতের বৃষ্টিপাত শুরুতে রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা দিয়ে প্রবেশ করলেও বর্তমানে বৃষ্টিপাতের মূল অংশ আবহাওয়া পূর্বাভাস মডেল নির্দেশিত পথ থেকে অল্প কিছুটা দক্ষিণ দিকে সরে কুষ্টিয়া জেলা দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করছে। 

তিনি আরও জানিয়েছিলেন, দুপুরের দিকে ঢাকায় বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এদিকে চলমান বৃষ্টি শুক্রবার পর্যন্ত স্থায়ী হবে বলে জানিয়েছেন কানাডার সাচকাচুন বিশ্ববিদ্যালয়ের আবহাওয়া ও জলবায়ু গবেষক মোস্তফা কামাল পলাশ।

তিনি বলেন, জেট স্ট্রিম বা পশ্চিমা লঘুচাপের কারণে চলতি মাসে আরও এক দফা দেশের বিভিন্ন স্থানে, বিশেষ করে উত্তরাঞ্চলে হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টিপাত হতে পারে। 

আবহাওয়া পূর্বাভাসের গ্লোবাল মডেল (আমেরিকান মডেল) অনুযায়ী তিনি জানান, চলতি মাসের ১৮ তারিখ থেকে ২০ তারিখ পর্যন্ত আবারও বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে ৪০-৫০ শতাংশ। ১৮ ফেব্রুয়ারি রংপুর বিভাগে এবং ২০ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম অঞ্চলে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। এ সময় বৃষ্টিপাতের পরিমাণ আরও বেশি হতে পারে। বৃষ্টিপাত ছাড়াও মাসজুড়ে থাকবে শীত এবং মার্চের প্রথম সপ্তাহের আগে শীতের তীব্রতা তেমন কমবে না।

এর আগে বুধবার আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে বলা হয়, কুমিল্লা ও নোয়াখালী অঞ্চলসহ রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দুই এক জায়গায় বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এ ছাড়া দেশের অন্যত্র আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। শেষ রাত থেকে সকাল পর্যন্ত সারাদেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে।