কেরানীগঞ্জের আগানগর বাঁশপট্টি এলাকার বাসিন্দা ওয়াসিমকে গলা কেটে হত্যার দায়ে চারজনকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ (ফাঁসি) দিয়েছেন আদালত। ঢাকার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ফাইজুন্নেছা আজ বৃহস্পতিবার এ রায় ঘোষণা করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- আব্দুল বাতেন, জাহাঙ্গীর আলম, পলক রহমান ও পাপ্পু। প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানাও করা হয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী গোলাম দস্তগীর এ তথ্য জানান।

রায় ঘোষণার সময় দুই আসামি আব্দুল বাতেন ও পলক আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায় ঘোষণা শেষে সাজা পরোয়ানা দিয়ে তাদের কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। অপর দুই আসামি পলাতক থাকায় তাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।

২০১৫ সালের ৪ এপ্রিল কেরানীগঞ্জ মডেল থানার আগানগর বাঁশপট্টি এলাকার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর পাওয়ার স্টেশনের পেছন থেকে অজ্ঞাতনামা এক ব্যক্তির গলা কাটা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে মামলা করে পুলিশ। পরে পুলিশ তদন্ত করে লাশের পরিচয় এবং হত্যার কারণ উদঘাটন করে এবং আসামিদের গ্রেপ্তার করে।

পরে এ ঘটনায় করা মামলা তদন্ত করে ২০১৬ সালে ৫ জনকে অভিযুক্ত করে দুটি চার্জশিট দাখিল করা হয়। এদের মধ্যে সজীব নামের এক আসামি শিশু হওয়ায় তার বিরুদ্ধে শিশু আইনে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়। গত বছর ২৪ জানুয়ারি বাকি চার আসামির বিরুদ্ধে চার্জগঠন করেন আদালত। আর সজীবের মামলাটি শিশু আদালতে বিচারাধীন। বিচার চলাকালে ২৪ জন সাক্ষীর মধ্যে ১৭ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করেন আদালত।