কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে ইয়াবা ঢাকায় এনে বিক্রি করে- এমন একটি চক্রের মূল হোতাসহ ছয় কারবারিকে গ্রেপ্তার করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর। গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন- ইব্রাহিম (২৮), ইয়াকুব (২৯), শামসুর আলম (৩০), তানভির মাহমুদ (৪৭), রবিন (৩২) ও জবা আক্তার (২৭)।

গত বুধবার তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের কাছ থেকে ৪০ হাজার পিস ইয়াবা জব্দ করা হয়েছে। গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের মধ্যে ইব্রাহিম, ইয়াকুব ও শামসুরের বাড়ি টেকনাফে। তারা ঢাকায় চালান নিয়ে আসার পর ধরা পড়েন। ইয়াবা মজুত করার জন্য তারা মিরপুর পূর্ব শেওড়াপাড়ায় তিনটি বাসা ভাড়া নিয়েছিলেন। গ্রেপ্তার হওয়া জবা আক্তার এসব বাসায় বসে ইয়াবা বিক্রি করতেন।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের (ডিএনসি) ঢাকা মহানগরের উত্তর কার্যালয়ের একাধিক দল বুধবার রাতে মাদকবিরোধী অভিযান চালায়। প্রথমে তানভির মাহমুদ ও রনিকে ভাটারা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদের মুখে তারা টেকনাফের মাদক কারবারিদের একটি চক্রের বিষয়ে তথ্য দেন। সেই তথ্যের ভিত্তিতে মিরপুর পূর্ব শেওড়াপাড়ায় অভিযান চালিয়ে ইব্রাহিম, ইয়াকুব, শামসুর ও জবা আক্তারকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ডিএনসিসির ঢাকা মহানগর উত্তরের উপপরিচালক রাশেদুজ্জামান সমকালকে জানান, ইব্রাহিম, ইয়াকুব ও শামসুর ইয়াবার বড় কারবারি। নিজেদের মধ্যে যোগাযোগে তারা কোনো মোবাইল ফোনের সিম ব্যবহার করতেন না। নির্দিষ্ট একটি অ্যাপ ব্যবহার করে ইয়াবা বেচাকেনা করা হতো।