গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) এক শিক্ষার্থীকে তুলে নিয়ে গিয়ে সংঘবদ্ধভাবে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার রাত ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, ধর্ষণের শিকার ওই শিক্ষার্থী তার বন্ধুর সঙ্গে গোপালগঞ্জ সদরের নবীনবাগ হেলিপ্যাডের সামনে থেকে হেঁটে মেসে যাচ্ছিলেন। পথে তাদের তুলে নেওয়া হয়। পরে ৭/৮ জন মিলে তাদের গোপালগঞ্জ জেলা স্কুলের নির্মাণাধীন ভবনে নিয়ে যায়। সেখানে ওই শিক্ষার্থীর সঙ্গে থাকা তার সহপাঠীকে মারধর করা হয়। এর পর সংঘবদ্ধভাবে ধর্ষণ করা হয় ওই শিক্ষার্থীকে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর রাজিউর রহমান বলেন, খবর পেয়ে আমরা তাৎক্ষণিকভাবে ধর্ষণের শিকার শিক্ষার্থীর সঙ্গে কথা বলেছি এবং আমি নিজে এ ঘটনায় বাদী হয়ে গোপালগঞ্জ সদর থানায় মামলা করেছি।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও অপারেশন) নিহাদ আদনান তাহিয়ান বলেন, তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থলে অভিযান চালানো হয়েছে। আশা করছি দ্রুত সময়ের মধ্যে অপরাধীদের আমরা গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হবো।

এদিকে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারের দাবিতে রাতে সদর থানার সামনে বিভোক্ষ করেন শিক্ষার্থীরা।