ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ বলেছেন, সরকার দেশের সব জমির ডিজিটাল জরিপ, ভূমি অপরাধ দমন প্রতিরোধ আইন প্রণয়ন, ল্যান্ড জোনিং ও ডিজিটাল পেমেন্ট কার্যক্রম শুরু করতে যাচ্ছে। একই সঙ্গে দলিল যার, জমি তার- এটিও বাস্তবায়ন করা হবে।

শনিবার 'ভূমিবিষয়ক আইন ও নীতি: চরাঞ্চলের বাস্তবতা' শীর্ষক এক জাতীয় সংলাপে তিনি এসব কথা বলেন।

মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের সহায়তায় ন্যাশনাল চর অ্যালায়েন্স ও গবেষণা সংগঠন সমুন্নয়ের উদ্যোগে রাজধানীর বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রে ওই সংলাপে সভাপতিত্ব করেন ন্যাশনাল চর অ্যালায়েন্স ও সমুন্নয়ের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ড. আতিউর রহমান।

সংলাপে মন্ত্রী আরও বলেন, চরের জমিতে ফসল ফলাবে ভূমিহীন কৃষক আর সেটা কেটে নিয়ে যাবে অদৃশ্য শক্তি- এ অবস্থা আর চলতে দেওয়া হবে না। চরাঞ্চলসহ দেশের সব ভূমির সুনির্দিষ্ট মালিকানা নিশ্চিত করতে নিবিড়ভাবে কাজ করছে ভূমি মন্ত্রণালয়।

ড. আতিউর রহমান বলেন, চরাঞ্চলের খাসজমিসহ ভূমি খাতে যে অনিয়ম রয়েছে, তা দূর করতে হবে। এর জন্য চাই অংশগ্রহণমূলক উদ্ভাবনী সমাধান।

আরও বক্তব্য দেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান দুলাল, অধ্যাপক এম এ মতিন এমপি এবং মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের সিনিয়র প্রোগ্রাম ম্যানেজার শোয়েব সাজ্জাদ খান। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ন্যাশনাল চর অ্যালায়েন্সের সদস্য সচিব জাহিদ রহমান।

এ ছাড়া আলোচক ছিলেন উন্নয়ন সংগঠন জিইউকের নির্বাহী পরিচালক আবদুস সালাম, উন্নয়ন সংঘের নির্বাহী পরিচালক রফিকুল আলম মোল্লা, কৃষক নেতা জায়েদ ইকবাল খান। এ ছাড়া এএলআরডি, ইসলামিক রিলিফ বাংলাদেশ, কনসার্ন ওয়ার্ল্ডওয়াইড, টিএমএসএসসহ বিভিন্ন উন্নয়ন সংগঠনের প্রতিনিধিরা আলোচনায় অংশ নেন।