মানি লন্ডারিং ও সন্ত্রাসে অর্থায়ন প্রতিরোধবিষয়ক কেন্দ্রীয় সংস্থা বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের (বিএফআইইউ) আলাদা ওয়েবসাইট চালু হয়েছে। নতুন ওয়েব ঠিকানা https://www.bfiu.org.bd/। এই প্ল্যাটফর্মে যে কেউ অভিযোগ জানাতে পারবেন। আবার জাতিসংঘসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার নিষিদ্ধ তালিকার তথ্য পাওয়া যাবে এখানে।

সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংকে আয়োজিত এক অনুষ্ঠান থেকে ওয়েবসাইটের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন বিএফআইইউর প্রধান মো. মাসুদ বিশ্বাস। এ সময় সংস্থাটির বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এতদিন বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েবসাইটে একটি পৃথক পেজ হিসেবে বিএফআইইউর ওয়েব কন্টেন্ট প্রদর্শিত হচ্ছিল।

বিএফআইইউ এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, বিএফআইইউর ওয়েবসাইটে অবৈধভাবে অর্জিত অর্থ-সম্পত্তির গোপন উৎস, তার অবৈধ ব্যবহার, মাদক চোরাচালান, জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসসহ নানামাত্রিক অপরাধবিষয়ক অভিযোগ জানানো। মানি লন্ডারিং ও সন্ত্রাসে অর্থায়নবিষয়ক জনসচেতনতা বাড়াতে বিএফআইইউর নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপ ওয়েবসাইটে থাকবে। এখানে মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ নিয়ে কাজ করা বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থা যেমন এপিজি, এফএটিএফ, এগমন্ট গ্রুপ, জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ ও দাতা সংস্থার পরিচিতিসহ ওয়েবলিঙ্ক দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া বিভিন্ন দেশের ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট এবং আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থার মানি লন্ডারিং প্রতিরোধে হালনাগাদ পদক্ষেপ উল্লেখ থাকবে এখানে।

সংশ্নিষ্টরা জানান, নাম ও পরিচয় দিয়ে কিংবা গোপন রেখে অভিযোগ জানানো হবে। উভয় ক্ষেত্রে অভিযোগকারীর তথ্য গোপন রাখবে বিএফআইইউ। এ ক্ষেত্রে বিএফআইইউর ওয়েব পেজে 'লজ কমপ্লেইন'-এ ক্লিক করতে হবে।