মহামারির বছরে অনেক মৃত্যু আর দুর্দশার মধ্যেও কিছু সুখের খবর দিয়েছে ওয়ার্ল্ড হ্যাপিনেস রিপোর্ট। জাতিসংঘের এ বার্ষিক প্রতিবেদন বলছে, ২০২১ সালে সুখ বেড়েছে বাংলাদেশের মানুষের মনে।

২০ মার্চ বিশ্ব সুখ দিবস সামনে রেখে শুক্রবার দশমবারের মত এই প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে জাতিসংঘের সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট নেটওয়ার্ক-এসডিএসএন। তাতে বাংলাদেশের উন্নতি হয়েছে সাত ধাপ।

২০১২ সাল থেকে মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি), সামাজিক সুরক্ষা, কাঙ্ক্ষিত গড় আয়ু, সিদ্ধান্ত নেওয়ার স্বাধীনতা, মানবিকতা, দুর্নীতির ধারণা এবং সার্বিক দুর্দশা-এই সাত মানদণ্ডের ভিত্তিতে বিচার করে একটি দেশের মানুষ কতটা সুখে আছে, তা বোঝার চেষ্টা করা হয়েছে এ প্রতিবেদনে। 

সেই হিসেবে ১০ ভিত্তিক স্কেলে এবারের সূচকে বাংলাদেশের সুখের ঝুলিতে সংগ্রহ ৫ দশমিক ১৫৫ পয়েন্ট, বিশ্বের ১৪৬টি দেশের মধ্যে অবস্থান ৯৪ তম।


আগের বছর ১০৪টি দেশের মধ্যে ৫ দশমিক ০২৫ পয়েন্ট নিয়ে বাংলাদেশ ছিল ১৪৯টি দেশের মধ্যে ১০১তম অবস্থানে।

সুখী দেশের এই তালিকায় গত পাঁচ বছর ধরেই অপ্রতিদ্বন্দ্বী ফিনল্যান্ড। এ বছর দেশটির ঝুলিতে সংগ্রহ ৭ দশমিক ৮২১ পয়েন্ট। শীর্ষ পাঁচে পরের চারটি দেশ হল ডেনমার্ক, আইসল্যান্ড, সুইজারল্যান্ড ও নেদারল্যান্ডস।