ইউক্রেনের সৈন্যরা রাশিয়ার যুদ্ধবন্দিদের পায়ে গুলি করেছে দাবি করে যে ভিডিও ভাইরাল হয়েছে, ইউক্রেন কর্তৃপক্ষ বলছে তারা এই দাবি তদন্ত করে দেখছে।

সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া অস্পষ্ট এই ভিডিওটি প্রথম প্রকাশ হয় ২৭শে মার্চ, রোববার খুব ভোরে। এরপর থেকে বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে রুশ সমর্থকদের অ্যাকাউন্ট থেকে এই ভিডিওটি বহুবার পোস্ট করা হয়। খবর বিবিসির। 

ইউক্রেন সশস্ত্র বাহিনীর কমান্ডার-ইন-চিফ ভ্যালেরি জালুঝনি বলেছেন, রাশিয়ান যুদ্ধবন্দিদের প্রতি ইউক্রেন দুর্ব্যবহার করছে বলে ইউক্রেনের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করতে রাশিয়া 'এই সাজানো ভিডিও তুলেছে এবং তা ছড়িয়ে দিচ্ছে।'

তবে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির একজন উপদেষ্টা অলেক্সি আরেস্তোভিচ বলেছেন বিষয়টি নিয়ে অবিলম্বে তদন্ত করা হবে। 

তিনি আরও বলেছেন, 'আমি আমাদের সেনাবাহিনী, নাগরিক এবং প্রতিরক্ষা বাহিনীকে মনে করিয়ে দেব যে যুদ্ধবন্দিদের ওপর অত্যাচার ও নিপীড়ন একটা যুদ্ধাপরাধ।'

ইউক্রেনে জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক পর্যবেক্ষণ মিশনের প্রধান মাটিলডা বগনার বলেছেন তিনি 'গভীরভাবে উদ্বিগ্ন' এবং তিনি নিশ্চিত করেছেন এই ভিডিও তদন্ত করে দেখা হবে।

বিবিসি এই ভিডিও ফুটেজ বিশ্লেষণ করেছে, যদিও এখনও নিরপেক্ষভাবে তা যাচাই করতে পারেনি। যাচাইয়ের প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে বলে জানিয়েছে।