ফেসবুকে ভুয়া আইডি খুলে নানা উগ্রবাদী প্রচারণার অভিযোগে রাসেল সরদার রাজ (২১) নামে এক তরুণকে গ্রেপ্তার করেছে কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট। ওই তরুণ পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠান নিয়ে নানা আপত্তিকর প্রচারণা চালাচ্ছিলেন। নববর্ষের অনুষ্ঠনে না যেতে হুমকি দিয়ে বলেছিলেন, গেলে খবর আছে! কেউ যদি যান, পরিণতি ভালো হবে না।

আতঙ্ক ছড়িয়ে বলেন, ‘নিজের জীবন বড়, নাকি পহেলা বৈশাখ বড়? অনুষ্ঠানে বোমা হামলা হতে পারে। সবাই সাবধান থাকবেন। একসময় রমনা বটমূলের কথা সবার মনে আছে। বোমার কথা। সবাই সাবধান। সাবধান।’

সিটিটিসি জানায়, মঙ্গলবার রাজধানীর বেইলি রোড এলাকা থেকে রাসেলকে গ্রেপ্তার করা হয়। ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে অধ্যয়নরত ওই তরুণ বেসরকারি একটি নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠানে খণ্ডকালীন কাজ করেন।

ওই অভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া সিটিটিসির সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগের ই-ফ্রড টিমের প্রধান সহকারী কমিশনার সুরঞ্জনা সাহা সমকালকে বলেন, একটি চক্র বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা গুজব ছড়াচ্ছিল। বিষয়টি জানতে পেরে তারা নজরদারি বাড়াতে থাকেন। এরই ধারাবাহিকতায় রাসেল নামের ওই তরুণকে শনাক্ত করে গ্রেপ্তার করা হয়।

সাইবার পুলিশের এ কর্মকর্তা বলেন, উগ্র মতবাদ সম্বলিত পোস্ট ও ভিডিও দেখে ওই তরুণ রেডিক্যালাইজড হয়েছে বলে তারা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জেনেছেন। এর পর নিজের পরিচয় গোপন করে ফেসবুকে ‘জিহাদের তলোয়ার’ নামে ভুয়া খুলে বিভিন্ন ব্যক্তিকে ওই দলে যুক্ত হওয়ার আহ্বান জানায়। দেশের গুরুত্বপূর্ণ বাহিনী, স্থাপনা ও বাঙালির সংস্কৃতি পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠান নিয়ে মিথ্যা অপপ্রচার চালাতে থাকে।

সিটিটিসি কর্মকর্তারা জানান, ওই তরুণ ফেসবুকে বুদ্ধি ও কৌশল কাজে লাগিয়ে ‘তাগুদ বাহিনীর’ ওপর আক্রমণের আহ্বান জানায়। পাশাপাশি দেশের ২ থেকে ৪টি গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় হামলারও আহ্বান জানায় সে। তাকে বিস্তারিত জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।