কক্সবাজারে চকরিয়া উপজেলার ডুলাহাজরায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে সিংহী ‘নদীর’ জীবনাশঙ্কার কথা জানিয়েছে পার্ক কর্তৃপক্ষ ও উপজেলা প্রাণিসম্পদ কার্যালয়।

পার্ক কর্তৃপক্ষ বলছে, পুরুষ সিংহ ‘সম্রাটের’ সঙ্গে মারামারি বাধিয়ে মারাত্মক আহত হয় ‘নদী’। পরে সেবাশুশ্রুষায় ‘সম্রাট’ সুস্থ হয়ে উঠলেও ‘নদীর’ অবস্থা ক্রমাবনতির দিকে যাচ্ছে।

ডুলাহাজরা পার্কের রেঞ্জ কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম সমকালকে বলেন, গত ২৭ মার্চ থেকে সিংহ নদী খাবার গ্রহণ করছে না। তার গলার নিচু অংশ থেকে নিয়মিত পানি ও গাল দিয়ে লালা ঝরছে। খাওয়াদাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে প্রায়।নদী যেন শুকিয়ে যাচ্ছে।

‘নদীকে’ সুস্থ করার জন্য চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যানিমেল সায়েন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ও পার্কের ভেটেরিনারী অফিসারসহ ৪ জনের নেতৃত্বে একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। 

চকরিয়া উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. শোভন নন্দী বলেন, ১১ বছর বয়সী সিংহী দিনদিন দুর্বল হয়ে যাচ্ছে। মুখ দিয়ে লালা ঝরছে ক্রমাগত। খাদ্য গ্রহণও করতে পারছে না। যা প্রাণীর জন্য শুভ লক্ষণ নয়। যেকোনো মুহূর্তে জীবন প্রদীপ নিভে যেতে পারে তার। 

ইতোপূর্বে বার্ধক্যজনিত কারণে ডুলাহাজরা সাফারি পার্কের ২২ বছর বয়সী সিংহ ‘সোহেল’ মারা গেছে। বর্তমানে ৪টি সিংহের মধ্যে রাসেল (১৩), টুম্পা (১০) ও সম্রাট (১০) সুস্থ অবস্থায় থাকলেও সম্রাটের জীবনসঙ্গী ‘নদী’ জীবন নিয়ে শঙ্কা কাটছে না।

অন্যদিকে পার্কে রংমালা নামে ৮৫ বছর বয়সী একটি হাতি অসুস্থ হয়ে পড়েছে। বার্ধক্যজনিত কারণে হাতিটি যেকোনো সময় মারা যেতে পারে।