'বৈশাখের সেতুবন্ধনে অসাম্প্রদায়িক চেতনায় গড়ে উঠুক বাংলাদেশ' এই স্লোগানকে ধারণ করে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ বাংলা বর্ষবরণে মঙ্গল শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভার আয়োজন করে। বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর বাহাদুর শাহ্ পার্ক থেকে শুরু হওয়া মঙ্গল শোভাযাত্রাটি আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয় ২৩ বঙ্গবন্ধু এ্যভিনিউয়ে গিয়ে শেষ হয়। 

পহেলা বৈশাখ ১৪২৯ উদযাপন উপলক্ষ্যে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ আয়োজিত মঙ্গল শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষি মন্ত্রী ড.আব্দুর রাজ্জাক। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, আওয়ামী লীগের শ্রম ও জনশক্তি বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজসহ আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিল্পব বড়ুয়া।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এ্যাড. নুরুল আমিন রুহুল এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব  মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির।

অনুষ্ঠানের শুরুতে দেশাত্মবোধক গান, রবীন্দ্রনাথ সংগীত ও লোকজ সংগীতের মাধ্যমে বাঙ্গালীর লোকজ ঐতিহ্যকে স্মরণ করেন তারা। পরবর্তীতে বাঙ্গালীর ঐতিহ্য, সংস্কৃতি ও অসাম্প্রদায়িকতার বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন বক্তারা।

তারা বলেন, বৈশাখ হোক নবজীবন ও অসাম্প্রদায়িকতার সেতু বন্ধন। বৈশাখের সেতু বন্ধনের মাধ্যমে সকল মানুষের মধ্যে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ে উঠবে। পরিচিতি পাবে শুধু বাঙ্গালী নামে।

প্রধান অতিথি কৃষি মন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অর্থনীতি মজবুত ভিত্তির উপর প্রতিষ্ঠিত। ঐক্যবদ্ধভাবে সকল ষড়যন্ত্র রোধ করা হবে।

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু বলতেন যারা সাম্প্রদায়িকতাকে লালন করে আমি তাদের ঘ্রীনা করি, তারা পশু তুল্য। সকলের ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টায় আগামীতে বাংলাদেশ হবে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ।

শিক্ষামন্ত্রী ড. দীপু মনি বলেন, পহেলা বৈশাখ বাঙ্গালী জাতীয় উৎসব। বাঙ্গালী হিসাবে যে ঐতিহ্য রয়েছে আমাদেরকে তা ধারণ করে আমরা এগিয়ে যাবো। কোন শক্তি তা রুখতে পারবে না। 

আওয়ামী লীগের যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাসিম বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিনষ্ট করতে স্বাধীনতা বিরোধী চক্ররা নানা রকম তৎপরতা চালাচ্ছে। বাংলাদেশকে নানা ধরেন চাপের মুখে ফেলানোর জন্য কাজ করে যাচ্ছে। এসব কুচক্রিদের রুখতে হবে।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের বর্ষবরণ আয়োজন বিষয়ে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এফ এম শরিফুল ইসলাম শরিফ বলেন, রমজানের ভাবগাম্ভীর্য বজায় রেখে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ তাদের মঙ্গল শোভাযাত্রা এবং আলোচনা সভার আয়োজন করে। দেশীয় সংস্কৃতি ধারণ করে অসাম্প্রদায়িক চেতনার বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে আমাদের আয়োজন।