আইনজীবীদের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ বার কাউন্সিল নির্বাচনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে করা রিট খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি রাজিক আল জলিল সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ মঙ্গলবার এই আদেশ দেন। এর ফলে তফসিল অনুযায়ী আগামী ২৫ মে বার কাউন্সিল নির্বাচন হতে আইনগত কোনো বাধা রইল না।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী আব্দুল মোনেম চৌধুরী। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তুষার কান্তি রায়। এর আগে বার কাউন্সিল নির্বাচনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন আব্দুল মোনেম চৌধুরী। রিটে বার কাউন্সিল নির্বাচন স্থগিত চাওয়া হয়। 

নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ ও বিএনপি সমর্থিত জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম দুটি প্যানেলে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে। বার কাউন্সিল দেশের আইনজীবীদের লাইসেন্স প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান ও নিয়ন্ত্র সংস্থা হিসেবে কাজ করে। 

আইন অনুযায়ী পদাধিকারবলে রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা অ্যাটর্নি জেনারেল বার কাউন্সিলের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।