ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের জেষ্ঠ্য সহ-সভাপতি সেলিনা হায়াৎ আইভীর করা মামলায় উচ্চ আদালত থেকে ৮ সপ্তাহের আগাম জামিন পেয়েছেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহা। 

মঙ্গলবার বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন ও বিচারপতি এসএম মুজিবুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত একটি বেঞ্চ শুনানি শেষে ৮ সপ্তাহের আগাম জামিন মঞ্জুর করেন। আগাম জামিনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন অ্যাডভোকেট খোকন সাহা নিজেই। 

এর আগে গত ২১ এপ্রিল তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালত। 

অ্যাডভোকেট খোকন সাহার পক্ষে জামিন শুনানিতে অংশ নেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক আইন প্রতিমন্ত্রী এবং সাবেক খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম।

নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট হাসান ফেরদৌস জুয়েল বলেন, শুনানি শেষে হাইকোর্টের বেঞ্চ ৮ সপ্তাহের আগাম জামিন মঞ্জুর করেন। 

নারায়ণগঞ্জ নগরের দেওভোগে কয়েকশত বছরের প্রাচীন জিউস পুকুরটি দেবোত্তর সম্পত্তি। এটি লক্ষ্মীনারায়ণ জিউর আখড়া মন্দিরের অংশ। বাংলাদেশের কোনো আইনে দেবোত্তর সম্পত্তি ক্রয় বিক্রয়ের নিয়ম না থাকলেও মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীর পরিবারের ৬ সদস্য পৃথক ৬টি দলিলে নিজেদের নামে পুকুরটি কিনেছেন বলে দাবি করেন। এ নিয়ে গত কয়েক বছর যাবত নারায়ণগঞ্জে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা আন্দোলন করছে। সেই আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছেন অ্যাডভোকেট খোকন সাহা।

গত বছরের ৪ জানুয়ারি সাইবার ট্রাব্যুনালে মামলাটি করেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহ সভাপতি ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী। মামলাটি তদন্তের জন্য অপরাধ তদন্ত বিভাগকে (সিআইডি) দায়িত্ব দেওয়া হয়।