বিশ্ব ঐতিহ্য ষাটগম্বুজ মসজিদে বাগেরহাটের প্রধান ঈদের জামাত উপলক্ষে সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে জেলা প্রশাসন। দর্শনার্থীদের জন্য দৃষ্টিনন্দন আলোকসজ্জাও করা হয়েছে মসজিদ প্রাঙ্গণে।

মসজিদে প্রতিবারের ন্যায় এবারও বাগেরহাটের ঈদুল ফিতরের প্রধান জামায়াত অনুষ্ঠিত হবে। মুসল্লিদের আধিক্যের কারণে ৩টি জামাত হবে। প্রথম জামাত হবে সকাল সাড়ে ৭টায়, দ্বিতীয় জামাত সোয়া ৮টা এবং ৩য় জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৯ টায়।

এই মসজিদে ঈদের প্রথম ও প্রধান জামাতে ইমামতি করবেন বাগেরহাট আলিয়া (কামিল) মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আবুল কালাম আজাদ। দ্বিতীয় জামাতে ইমামতি করবেন ষাটগম্বুজ মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওলানা হেলাল উদ্দিন। তৃতীয় এবং সর্বশেষ জামাতে ইমামতি করবেন বাগেরহাট শহরের সিঙ্গাইড় জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা মোজাহিদুল ইসলাম।

বাগেরহাটের প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের কাস্টোডিয়ান মো. যায়েদ বলেন, জেলার প্রধান ঈদের নামাজ ষাটগম্বুজ মসজিদে হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে মোট তিনটি জামাত হবে। তিন জামাতে ছয় হাজার মুসল্লি নামাজ আদায় করবেন এখানে। মসজিদের ভেতরে একসঙ্গে দেড় হাজার ও বাইরে ৫ শতাধিক মানুষের নামাজের ব্যবস্থা থাকবে। এছাড়া ঈদ ও ঈদ-পরবর্তী এক সপ্তাহ দর্শনার্থীদের জন্য দৃষ্টিনন্দন আলোকসজ্জার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

ষাটগুম্বুজ মসজিদে ঈদের জামাতের মুসল্লিদের নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে পুলিশের পাশাপাশি অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিপুল সংখ্যক সদস্য নিয়োজিত থাকবে বলে জানান তিনি।