খুলনা সিটি করপোরেশনের (কেসিসি) মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি তালুকদার আবদুল খালেক গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। শনিবার বেলা ১১টায় তাকে নগরীর শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়েছে।

মেয়রের স্ত্রী এবং পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

হাবিবুন নাহার জানান, সিটি মেয়রের ইউরিন ইনফেকশন বেড়ে যাওয়ায় ডায়াবেটিসও বেড়ে গেছে। সেই সঙ্গে তার শরীরে অস্বাভাবিক জ্বরও ছিল। হাসপাতালে নেওয়ার জন্য গাড়িতে উঠানোর পর তার খিচুনি শুরু হয়। এরপর তাকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। 

তিনি আরও জানান, ডাক্তারের কাছে চেকআপে যাওয়ার জন্য শনিবার সকাল থেকে তিনি (খালেক) ইনসুলিন নেননি এবং কিছু খাননি। তবে হাসপাতালে ভর্তির পর জ্বর ও ডায়াবেটিস কিছুটা কমেছে। বর্তমানে তাকে আইসিইউতে রাখা হয়েছে। শারীরিক অবস্থা আইসিইউতে রাখার মতো না হলেও জনগণের ভিড় এড়াতে তাকে আইসিইউতে রাখা হয়েছে।

হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. এস এম মোর্শেদ জানান, সিটি মেয়রের ডায়বেটিস বেশি রয়েছে। একইসঙ্গে তার ইউরিনে সমস্যা রয়েছে। এ কারণে তার অনেক জ্বর হয়েছিল। বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থা ভালো। তারপরও তাকে হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়েছে, যাতে করে লোক সমাগম কম হয় এবং তাকে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা যায়।

হাসপাতালে থাকা মেয়রের স্বজনরা জানান, যদি সিটি মেয়রকে ঢাকায় পাঠানোর প্রয়োজন হয়, সেজন্য আগে থেকে আবু নাসের হাসপাতালে একটি হেলিকপ্টার এনে রাখা হয়েছে।