সয়াবিন তেলের অবৈধ মজুত ও সরকার নির্ধারিত দরের চেয়ে বেশি মূল্য নেয়ায় রাজশাহীর তিনটি দোকান মালিককে ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। মঙ্গলবার দুপুরে ভোক্তা অধিকারের রাজশাহী অফিসের সহকারি পরিচালক হাসান আল মারুফ অভিযান চালিয়ে এ জরিমানার অর্থ আদায় করেন।

এ বিষয়ে হাসান আল মারুফ জানান, সাহেব বাজারের হুমায়ুন স্টোরের মালিক হুমায়ুন কবীরের দোকানে প্রকাশ্যে কোনো সয়াবিন তেল রাখা ছিল না। পরে অভিযান চালিয়ে দেখা যায় ভেতরে ১৩২ লিটার তেল গোপনে মজুত করে রাখা। অবৈধ মজুতের অপরাধে হুমায়ুন কবীরকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। 

তিনি বলেন, সাহেব বাজারে পাপ্পু অ্যান্ড ব্রাদার্সের মালিক নজরুল ইসলাম ৫ লিটার সয়াবিন তেলের বোতলের গায়ে ৭৬০ টাকা মূল্য লেখা থাকলেও বিক্রি করেন তেল ৯৮৫ টাকায়। এ কারণে তাকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এছাড়া খোলা সয়াবিনের তেলের দাম সরকার নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে বেশি নেয়ায় নগরীর বহরমপুর মোড়ের নুরুন্নবী ট্রেডার্সের মালিক মো. নুরুন্নবীকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। তিনি জানান, নুরুন্নবী ১৮০ টাকা লিটারের খোলা সয়াবিন তেল ১৮৫ টাকায় বিক্রি করছিলেন। এ কারণে তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।