দুই বন্ধু মিলে গিয়েছিলেন চাইনিজ খেতে। কিন্তু চাইনিজ খেয়ে আর বাড়ি ফেরা হলো না তাদের। তার আগেই ঘাতক ট্রাক এসে কেড়ে নিলো একজনের প্রাণ। অপর বন্ধু গুরুতর আহত হয়ে এখন হাসপাতালের বিছানায় চিকিৎসাধীন। সোমবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে জয়পুরহাটের জয়পুরহাট-মঙ্গলবাড়ী সড়কের বোর্ডঘর এলাকায় ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় জয় হোসেন (২০) নামে এক মাদ্রাসা শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। এসময় গুরুতর আহত হয়েছেন জয়ের সাথে থাকা তার বন্ধু তাহমিদ (২১)। তিনি জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধ

জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর জাহান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত জয় হোসেন নওগাঁর ধামইরহাট উপজেলার ফাঁসিপাড়া গ্রামের আতোয়ার হোসেনের ছেলে। সে ধামইরহাট সিদ্দিকীয়া ফাজিল মাদ্রাসার আলিম প্রথম বর্ষের ছাত্র। আহত তাহমিদ একই গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে। সে জয়পুরহাট সরকারি অনার্স কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র।

জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর জাহান জানান, সোমবার রাতে দুই বন্ধু জয় হোসেন ও তাহমিদ মিলে জয়পুরহাট শহরে একটি চাইনিজ রেস্টুরেন্টে খেতে গিয়েছিল। খাবার খেয়ে মোটরসাইকেলে নিয়ে নিজ বাড়িতে ফিরছিল তারা। কিন্তু বোর্ডঘর এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি দ্রুতগ্রামী ট্রাকের সঙ্গে তাদের মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

এতে ঘটনাস্থলেই মাদ্রাসা শিক্ষার্থী জয় মারা যায়। এ ঘটনায় আহত হয় তার বন্ধু তাহমিদ। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে ভর্তি করেন।