বাগেরহাটের কচুয়ায় এম এম মনির নামের এক ভুয়া চিকিৎসককে ১ লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে দুই মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার দুপুরে কচুয়া উপজেলার জিরো পয়েন্ট এলাকায় ওই ভুয়া চিকিৎসকের চেম্বারে অভিযান চালিয়ে জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার রোহান সরকার ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক হিসেবে এই দণ্ডাদেশ দেন। এ সময় সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডা. মেহেদি হাসান উপস্থিত ছিলেন।  

দণ্ডপ্রাপ্ত এম এম মনির বাগেরহাট পৌর শহরের হরিণখানা এলাকার সোহরাব হোসেনের ছেলে। স্থানীয়রা জানায়, চার বছর ধরে চক্ষু, নাক, গান, গলা, মাথা ব্যথা রোগে অভিজ্ঞ এমন সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে স্থানীয়দের সাথে চিকিৎসার নামে প্রতারণা করছিলেন এম এম মনির।

সহকারী কমিশনার রোহান সরকার বলেন, প্রাথমিক চিকিৎসার একটি প্রশিক্ষণ নিয়েই এম এম মনির নিজেকে এমবিবিএস পাস দাবি করে মানুষকে চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছিলেন। তিনি সাইনবোর্ডে যে রেজিস্ট্রেশন নাম্বারটি লিখেছেন সেটিও ভুয়া।  তার অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাকে এক লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে দুই মাসের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে তার চেম্বার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।