প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেছেন, ভোটের মাধ্যমে একটি দায়িত্বশীল পার্লামেন্ট গঠিত হোক এটি নির্বাচন কমিশনের আন্তরিক প্রত্যাশা। কিন্তু এ প্রত্যাশা এককভাবে কখনওই নির্বাচন কমিশন পূরণ করতে পারবে না।

শুক্রবার দুপুরে সাভার উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম-২০২২ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, নির্বাচন সফল করার জন্য প্রজাতন্ত্রের কর্মকর্তা, কর্মচারী, রাষ্ট্রের সব প্রশাসন বিশেষ করে সব জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসনসহ যারা দয়িত্বে থাকবেন তাদের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে। 

এসময় সিইসি আরও বলেন, মুজিব বর্ষের অঙ্গীকার, রক্ষা করিবো ভোটাধিকার। তাই ভোটাধিকার প্রয়োগ করা যেমন আমাদের নাগরিক দায়িত্ব তেমনই যারা জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে জনপ্রতিনিধি হন তাদেরও জনগনকে দেওয়া নির্বাচনি অঙ্গীকারের কথা মনে রাখতে হবে।

আগামী জাতীয় নির্বাচন প্রসঙ্গে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, আমরা নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে যে দায়িত্বটি গ্রহণ করেছি, নতুন একটি কমিশন হিসেবে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। আমরা বলতে চাই, আমাদের আন্তরিক প্রত্যাশা একটি অংশগ্রহণমূলক ও প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হোক। আমরা চাই গণতন্ত্র বিকশিত হোক এবং ভোটের মাধ্যমে একটি দায়িত্বশীল পার্লামেন্ট গঠিত হোক। পার্লামেন্টে তর্ক-বিতর্কের মাধ্যমে জনগণের অধিকারও সংরক্ষিত হোক এবং আমরা যেন উন্নত রাষ্ট্র এবং উন্নত গণতন্ত্রের দিকে ধাবিত হই আমি সেই প্রত্যাশা ব্যক্ত করছি।

ভোটের মাঠে সহিংসতা না করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, জনগণ যদি সচেতন হয়, ভোটারা যদি সচেতন হয়, ভোটারা যদি প্রতিবাদমুখর হয়ে উঠে, যখন ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে গিয়ে একজন ভোটার যদি ভোট দিতে না পারেন, তিনি যদি বাধা পান তখন তিনি যদি প্রতিবাদী হয়ে উঠেন তাহলে কিন্তু ভোটাধিকার প্রয়োগ অনেকটাই সহায়ক হবে।  

সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিস, ঢাকা ও সাভার উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার। 

অনুষ্ঠানে সাভার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল আলম রাজীব, সাভার পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব আবদুল গণি, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম, ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন সরদার, জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মনির হোসেন, সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠান শেষে সিইসি বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম-২০২২ এর উদ্বোধন ঘোষণা করেন। এরপর তিনি উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন একটি বাড়িতে গিয়ে প্রথম হালনাগাদ কর্যক্রম শুরু করেন।