অর্থ আত্মসাতের মামলায় নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের চার সদস্যকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। তাদের সাতদিনের মধ্যে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদেরও অনুমতি দেওয়া হয়েছে। 

উভয়পক্ষের শুনানি শেষে ঢাকার মহানগর জ্যেষ্ঠ বিশেষ বিচারক কে এম ইমরুল কায়েশ সোমবার এ আদেশ দেন।

এদিন দুপুরে শাহবাগ থানা পুলিশ চার আসামিকে আদালতে হাজির করে। দুর্নীতি দমন কমিশনের দায়ের করা মামলার এই চার আসামি হলেন-এমএ কাশেম, বেনজীর আহমেদ, রেহানা রহমান ও মোহাম্মদ শাহজাহান। আসামিদের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী শাহিনুর ইসলাম ও দুদকের পক্ষে ছিলেন মোশারফ হোসেন কাজল।

রোববার আগাম জামিন চেয়ে তারা হাইকোর্টে আবেদন করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আবেদন সরাসরি খারিজ করে তাদের পুলিশে সোপর্দ করেন আদালত। একই সঙ্গে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তাদের বিচারিক (নিম্ন) আদালতে হাজির করতে শাহবাগ থানার ওসিকে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। সে অনুযায়ী রাতে তাদের শাহবাগ থানায় রাখা হয়। দুপুরে আদালতে হাজির করে পুলিশ।

নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের জমি কেনা বাবদ অতিরিক্ত ৩০৩ কোটি ৮২ লাখ টাকা ব্যয় দেখিয়ে তা আত্মসাতের অভিযোগে গত ৫ মে বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যানসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুদকের উপ-পরিচালক মো. ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী এ মামলা করেন।