চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে কনটেইনার টার্মিনালে বিস্ফোরণের ঘটনায় দলমত নির্বিশেষে আহতদের কল্যাণে কাজ করার আহবান জানিয়েছেন ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী।

সোমবার রাজধানীতে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউটে গিয়ে চিকিৎসাধীন আহতদের খোঁজ-খবর নেওয়ার পর মন্ত্রী সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে এ আহবান জানান।

মন্ত্রীকে জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউটের পরিচালক প্রফেসর ড. আবুল কালাম আহতদের অবস্থা সম্পর্কে অবগত করেন। এসময় ভূমি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব প্রদীপ কুমার দাস উপস্থিত ছিলেন। পরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে মন্ত্রী মর্মান্তিক ঘটনায় যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের রুহের মাগফেরাত কামনা করেন।

মন্ত্রী বলেন, অনেকেই প্রিয়জন হারিয়েছেন। অনেকের নিকটজন আজ চিকিৎসাধীন। এই মুহুর্তে আমাদের প্রথম লক্ষ্য সুচিকিৎসা নিশ্চিত করা। যেন আহতরা দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠেন। এ ব্যাপারে সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, বিস্ফোরণ পরবর্তী আগুন নিয়ন্ত্রণে এবং আহতদের উদ্ধারে ফায়ার ফাইটার, সেনা সদস্যসহ অনেকেই জীবন বাজি রেখে কাজ করেছেন। আহতদের চিকিৎসায় ডাক্তার ও স্বাস্থ্যকর্মীরা আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছেন। স্বেচ্ছাসেবকরাও জীবন রক্ষায় রক্ত সংগ্রহসহ নানা ধরণের সহায়তামূলক কাজ করে যাচ্ছেন। এই সংকটকালীন সময়ে দলমত নির্বিশেষে আমাদের এভাবে কাজ করে যেতে হবে।

সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে ভূমিমন্ত্রী বলেন, তদন্ত কমিটি রিপোর্ট না দেওয়া পর্যন্ত দুর্ঘটনার কারণ সম্পর্কে কোন মন্তব্য করা সমীচীন হবে না। আপাতত আমাদের মূল লক্ষ্য হলো আহতদের সুস্থ্যতা নিশ্চিত করা এবং তাদের সহায়তা করা।

এর আগে শনিবার রাত ৯টার দিকে সীতাকুণ্ড উপজেলার সোনাইছড়ি ইউনিয়নের কেশবপুর গ্রামে বেসরকারি বিএম কন্টেইনার ডিপোতে আগুন লাগে। এসময় সেখানে থাকা রাসায়নিকের কন্টেইনারে একের পর এক বিকট বিস্ফোরণ ঘটতে থাকলে আগুন ভয়ঙ্কর মাত্রা পায়। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৪১ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে জেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ।