রমিজ রাজাকে পিসিবির চেয়ারম্যান করার পেছনে সবটাই অবদান ছিল পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের! প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তার পতন ঘটার পর থেকেই রমিজের টিকে থাকা নিয়ে সন্দেহ দানা বেঁধেছে। সে সন্দেহ এখন আরো মজবুত হলো। রমিজ রাজার চেয়ারে এখন বসতে পারে অন্য কেউ। এমনটাই জানা গেছে পাকিস্তানের ক্রিকেটভিত্তিক জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যম 'ক্রিকেট পাকিস্তান' এর এক প্রতিবেদনে।

ইতিহাস বলছে, পাকিস্তানে নতুন সরকার আসলে পিসিবির ব্যবস্থাপনাতেও ব্যাপক পরিবর্তন আসে। তবে ইমরান খানের পতনের পর রমিজের নেতৃতত্বাধীন বোর্ড এখন পর্যন্ত টিকে আছে ভিন্ন কারণে। রমিজের অধীনে দারুণ করছে পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল। সবশেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে জয় পেয়েছে ভারতের বিপক্ষে। এছাড়া ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়া এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে একদিনের সিরিজ জিতেছে বাবর আজমরা।

সূত্রের খবর, আসন্ন ফেডারেল মন্ত্রিসভার বৈঠকে পিসিবির বোর্ড অব গভর্নরস থেকে রমিজ রাজা এবং আসাদ আলি খানের সম্ভাব্য অপসারণের সাথে বোর্ডের গঠনতন্ত্রে সংশোধনী নিয়ে আলোচনা হতে পারে। সংবিধানের ৪৭ অনুচ্ছেদের অধীনে প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরীফ নতুন পিসিবি চেয়ারম্যানের জন্য সুপারিশ করবে।

এছাড়াও, রমিজ রাজাকে সরাতে সমর্থন জানিয়েছেন পিসিবির একাধিক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা। সেই লক্ষ্য সামনে রেখে প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরীফ ইতিমধ্যে নাজাম শেঠি, জাকা আশরাফ এবং খালিদ মাহমুদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন।