অর্থনৈতিক সংকটে পড়া শ্রীলঙ্কায় স্বাস্থ্যসেবা ও খাদ্যপণ্য সরবরাহের কাজে নিয়োজিত পরিবহন ছাড়া আগামী দুই সপ্তাহ শ্রীলঙ্কায় কোনো ধরনের যানবাহনে জ্বালানি ভরতে দেওয়া হবে না।

ইতিমধ্যে রাজধানী কলম্বোসহ শহর এলাকায় স্কুল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। জ্বালানি সাশ্রয়ে কর্মীদের ঘরে বসে অফিসের কাজ করার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। খবর বিবিসির। 

সোমবার শ্রীলঙ্কা সরকার এক ঘোষণা দিয়ে বলেছে, আগামী ১০ জুলাই পর্যন্ত বেসরকারি পরিবহনের পেট্রল ও ডিজেল কেনায় নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হলো।

শ্রীলঙ্কার মন্ত্রিসভার একজন মুখপাত্র বান্দুলা গুনেবর্ধনা বলেছেন, স্বাধীন শ্রীলঙ্কা তার ইতিহাসে আর কখনোই এতটা ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকটের মুখে পড়েনি।

সংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, শ্রীলঙ্কার জ্বালানির যে মজুত অবশিষ্ট আছে, তা মঙ্গলবার শেষ হবে।