ব্যবসার সুযোগ বাড়াতে ভূমিসেবা কার্যক্রম আরও সহজ ও বিনিয়োগবান্ধব করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী। তিনি বলেন, দেশি-বিদেশি বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ভূমিবিষয়ক প্রয়োজনীয় কাজ যেমন নামজারি, ভূমি উন্নয়ন কর বা বন্দোবস্ত প্রক্রিয়া আরও সহজ করা হবে।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে ভূমি মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সরকারের কর্মসম্পাদন ব্যবস্থাপনা পদ্ধতির আওতায় ভূমি মন্ত্রণালয় আওতাধীন দপ্তর, সংস্থার ২০২২-২৩ অর্থবছরের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে ভূমি সচিব মো. মোস্তাফিজুর রহমান পিএএসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে উৎপাদনশীল খাতে বিনিয়োগের বিকল্প নেই উল্লেখ করে মন্ত্রী আরও বলেন, শিল্পে বিনিয়োগের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপাদান ভূমি। তাই দ্রুত অর্থনৈতিক বিকাশের স্বার্থে সহজে ব্যবসার সুযোগের ক্ষেত্রে দেশকে আরও অনেক ধাপ এগিয়ে যেতে হবে। ইতোমধ্যে চট্টগ্রাম, ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ ও গাজীপুরের সব গুরুত্বপূর্ণ শিল্প-প্রতিষ্ঠান ও রপ্তানিমুখী শিল্পের জমির নামজারি সাত দিনে সম্পন্ন করার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই ব্যবস্থা প্রয়োজনে আরও সম্প্রসারণ করা হবে।

এপিএ চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ভূমি আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. অমিতাভ সরকার, ভূমি সংস্কার বোর্ডের চেয়ারম্যান সোলেমান খান, ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. মোয়াজ্জেম হোসেন, ভূমি প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের পরিচালক মো. আরিফ, হিসাব নিয়ন্ত্রক (রাজস্ব) মো. মশিউর রহমান প্রমুখ।