বগুড়ায় পলিটেকনিক শিক্ষার্থী আল জামিউল বনি (২২) হত্যাকাণ্ডের প্রধান আসামি আরিফ শেখকে (২৮) গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। শনিবার দিনগত রাত ১২টার দিকে রাজশাহীর সদর থানার সাগরপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার আরিফ বগুড়া শহরের লতিফপুর কলোনি এলাকার আজিজ শেখের ছেলে।

আরিফের বিরুদ্ধে অস্ত্র, মাদক, অবৈধভাবে জমি দখলসহ একাধিক মামলা রয়েছে বলে আজ রোববার জানিয়েছেন র‍্যাব-১২ বগুড়ার ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি কমান্ডার নজরুল ইসলাম। 

তিনি জানান, গত ৩ জুন সন্ধ্যা ৬টার দিকে বনি তার বান্ধবীকে সঙ্গে নিয়ে শহরের কলোনী এলাকায় চাপ (এক ধরনে খাবার) খেতে যান। তখন আরিফ তার বান্ধবীকে উত্যক্ত করতে থাকে। প্রতিবাদ করলে বনির সঙ্গে আরিফের বাগবিতণ্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে আরিফ চড়াও হয়ে বনির মাথায় একাধিক ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যান। পরে বর্তীতে বনিকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। পরেরদিন বনির বাবা সদর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। র‍্যাব হত্যার রহস্য উদঘাটন ও আসামিদের ধরতে নজরদারি শুরু করে। 

নিহত বনি শহরের মালতিনগর এমএস ক্লাব মাঠ এলাকার আনিছুর রহমানের ছেলে। তিনি বগুড়া পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের কম্পিউটার সায়েন্সের পঞ্চম সেমিস্টারের শিক্ষার্থী। পাশাপাশি জামিউল স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে সাইক্লিস্ট গ্রুপ, বিডি ক্লিন ও রক্তদান সংগঠনের সাথে যুক্ত ছিলেন।

নজরুল ইসলাম আরও জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আরিফ স্বীকার করেছেন যে, তিনি এবং তার সহযোগী সোহান মিলে আল জামিউল বনিকে ছুরিকাঘাত করেছেন।