নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দুর্দান্ত সব রান তাড়া করে জিতেছে ইংল্যান্ড। ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়লেও তা দারুণভাবে সামলে নিয়েছে। কিন্তু এজবাস্টনে ভারতের বিপক্ষে সেটা পারলো না। প্রথম ইনিংসে ভারতের ৪১৬ রানের জবাবে আটকে গেছে ২৮৪ রানে। ভারত লিড পেয়েছে ১৩২ রানের। 

ধ্বংসস্তুতে দাঁড়িয়ে একজন জনি বেয়ারস্টো লড়াই করে গেছেন। বুমরাহ-শামির বোলিংয়ের বিরুদ্ধে সাবলীল ব্যাটিং করেছেন। সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন। বাকি গল্পটা জাসপ্রিত বুমরাহ ও মোহাম্মদ সিরাজের। অধিনায়ক বুমরাহ শুরুর তিন উইকেট নিয়ে এবং সিরাজ শেষ দিকে চার উইকেট নিয়ে প্যাকেট করেছেন ইংলিশদের। 

প্রথম ইনিংসে ৬২.৩ ওভার ব্যাটিং করা ইংল্যান্ডের হয়ে জনি বেয়ারস্টো খেলেছেন ১৪০ বলে ১০৬ রানের ইনিংস। তিনি ১৪টি চার ও দুটি ছক্কা মেরেছেন। ইংল্যান্ডের হয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান স্যাম বিলিংসের। তিনি বেয়ারস্টোর সঙ্গে ৯৭ রানের জুটি গড়ার পথে খেলেন ৩৬ রানের ইনিংস। এছাড়া রুট করেন ৩১ রান। 

ব্যাটিংয়ের সময় বৃষ্টি খুব জ্বালিয়েছে ইংল্যান্ডকে। বৃষ্টিতে তিনবার খেলা বন্ধ হয়েছে। এরপর বুমরাহ শুরুর তিন ব্যাটার অ্যালেক্স লিস, জ্যাক ক্রলি এবং অলি পোপকে ফিরিয়েছেন। মোহাম্মদ শামি দুই উইকেট নিলেও তিনি ফিরিয়েছেন বেয়ারস্টোকে। 

ভারত বড় সংগ্রহ পেলেও তাদের টপ অর্ডার ব্যর্থ ছিল। ৯৮ রানে পাঁচ উইকেট হারায় দলটি। এরপর ঋষভ পান্ত ১১১ বলে ১৪৬ রানের ইনিংস খেলেছেন। পরে রবিন্দ্র জাদেজা করেন ১০৬ রান। ২২২ রানের একটি জুটি পায় ভারত। ইংল্যান্ডের হয়ে বুড়ো জেমস অ্যান্ডারসন তুলে নেন পাঁচ উইকেট।