আশা জাগিয়েও এজবাস্টন টেস্টে হার। ভারতীয় দল এখন তাকিয়ে টি২০ সিরিজের দিকে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি২০ সিরিজটি ভারতের জন্য নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠেয় বিশ্বকাপের সেরা একাদশ বেছে নেওয়ার সিরিজ। 

সাউদাম্পটনে বাংলাদেশ সময় রাত ১১টায় স্বাগতিকদের মুখোমুখি অন্য ভারত। আর ইয়ন মরগান নেতৃত্ব ছাড়ার পর জস বাটলার যুগে প্রথম ম্যাচ খেলতে নামছে ইংল্যান্ড।

করোনা পজিটিভ হওয়ায় এজবাস্টন টেস্টে ছিলেন না রোহিত শর্মা। টি২০-তে সিরিজে নেগেটিভ হয়েই ফিরছেন রোহিত। টেস্টে খেলা বিরাট কোহলি, জাসপ্রিত বুমরাহ, রবীন্দ্র জাদেজা, শ্রেয়াস আয়ার ও ঋশভ পন্থ প্রথম ম্যাচে খেলবেন না। দ্বিতীয়টিতে তাঁদের সবাই দলের সঙ্গে যোগ দেবেন। 

কারণ, এক দিনের বিরতিতে আরেকটি ম্যাচ খেলতে চাইছেন না কোহলিরা। তারকা খেলোয়াড়দের অনুপস্থিতিতে প্রথম ম্যাচে নিজেদের মেলে ধরার সুযোগ পাচ্ছেন ঋতুরাজ গাইকওয়াদ ও সঞ্জু স্যামসন। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে দুই ম্যাচের টি২০-তে ঈষান কিষানের সঙ্গে ওপেন করেছিলেন গাইকওয়াদ। তবে রোহিত ফেরায় তাঁর ঠিকানা সম্ভবত বেঞ্চেই। 

দ্বিতীয় ম্যাচ থেকে তিন নম্বরে ব্যাট করবেন কোহলি। আর আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ব্যাট হাতে ঝড় তোলা দ্বীপক হুদার সামনে এবার ইংল্যান্ডে নায়ক হওয়ার সুযোগ। আয়ারল্যান্ডে সেঞ্চুরি এবং অপরাজিত ৪৭ রান করায় তাঁকে দল থেকে বাদ দেওয়াটা টিম ম্যানেজমেন্টের জন্য কঠিনই বলা চলে।

টেস্ট সিরিজ জেতা ইংল্যান্ড বেশ আত্মবিশ্বাসী। টি২০-তে মুখোমুখি লড়াইয়ে ভারতের চেয়ে পিছিয়ে ইংলিশরা। ১৯ বারের সাক্ষাতে ভারতের ১০ জয়ের বিপরীতে ইংল্যান্ড জিতেছে ৯টিতে। ঘরের মাঠে সিরিজে এগিয়ে যাওয়ার হাতছানি বাটলারের দলের সামনে।