বাংলাদেশের নেতাদের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয়, আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করতে ঢাকায় পৌঁছেছেন চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই। শনিবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে ঢাকায় পৌঁছায় চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে বহনকারী উড়োজাহাজ।

আশিয়ান পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের সম্মেলন শেষে কম্বোডিয়া থেকে চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে বহনকারী বিশেষ উড়োজাহাজটি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছালে তাকে সেখানে স্বাগত জানান কৃষিমন্ত্রী আবদুর রাজ্জাক।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সূত্র জানায়, আজ শনিবার বিকেল ৬টায় চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী রাজধানীর ধারমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে যাবেন। সেখানে বাংলাদেশের স্থপিতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাবেন।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন বর্তমানে আশিয়ান পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের সম্মেলনে যোগ দিতে কম্বোডিয়ায় রয়েছেন। আজ শনিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে তার ঢাকা ফেরার কথা রয়েছে।

আগামীকাল রোববার সকালে বাংলাদেশ ও চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। এ বৈঠকের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই। রোববার দুপুরের মধ্যে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ঢাকা ছাড়ার কথা রয়েছে।

সূত্র জানায়, চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এবারের সফরে আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক ভূরাজনীতির বিষয়গুলো গুরুত্ব পাবে। বর্তমান বিশ্বের পরিবর্তিত প্রেক্ষাপটে আন্তর্জাতিক বিষয়গুলোতে বাংলাদেশকে পাশে চাইবে চীন। এক্ষেত্রে বাংলাদেশ তার পররাষ্ট্র নীতি অনুসরণ করে যতটুকু চীনের পাশে থাকা যায়, সেই চেষ্টাই করবে।