রাজধানীর পান্থপথের একটি আবাসিক হোটেলে এক নারী চিকিৎসককে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। বুধবার রাতে কলাবাগান থানা পুলিশ ফ্যামিলি সার্ভিস অ্যাপার্টমেন্ট নামের ওই আবাসিক হোটেলের একটি কক্ষ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

 জান্নাতুল নাইম সিদ্দিকী (ছবি-সংগৃহীত)

নিহতের নাম জান্নাতুল নাইম সিদ্দিকী (২৭)। তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গাইনি বিষয়ক একটি কোর্সে পড়ছিলেন। তার বাসা রাজধানীর শাজাহানপুরে। গ্রামের বাড়ি নরসিংদী জেলায়। বুধবার সকাল ৮টায় রেজাউল করিম রেজা নামে এক যুবকের সঙ্গে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে ওই আবাসিক হোটেলে উঠেছিলেন তিনি।

কলাবাগান থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবু জাফর সমকালকে বলেন, রেজাউল করিম রেজা নামে এক যুবকের সঙ্গে ডা. জান্নাতুল হোটেল কক্ষে উঠেছিলেন। ধারণা করা হচ্ছে সকাল ৮ থেকে ১১টার মধ্যে এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে। হত্যার পর বাইরে থেকে দরজায় তালা লাগিয়ে চলে যায় ওই যুবক। হোটেলের চতুর্থ তলার ৩০৫ নম্বর কক্ষে বিছানায় পড়ে ছিল মরদেহ। তার শরীরে একাধিক জখমের দাগ ছিল।

আবাসিক হোটেলের কক্ষে যাচ্ছেন রেজাউল করিম রেজা ও জান্নাতুল নাইম সিদ্দিকী (ছবি-সিসিটিভি ফুটেজ থেকে নেওয়া)  

জাফর হোসেন জানান, বুধবার সকাল ৮টায় তারা হোটেলটিতে চেক ইন করেন। দুপুরের দিকে ওই যুবক (রেজাউল করিম) হোটেল কক্ষে তালা মেরে চলে যায়। হোটেল ম্যানেজার তাকে ফোন করলে জানায়, ও (জান্নাতুল নাঈম) ঘুমাচ্ছে। আমি আসছি। বিকালে আবার কল করলে তার ফোন বন্ধ পান ম্যানেজার। ওই যুবক আর না আসায় রাতে তিনি বিষয়টি পুলিশকে জানান।

এ ঘটনায় নিহতের পরিবার মামলা করেছে জানিয়ে তিনি বলেন, রেজার সঙ্গে ওই চিকিৎসকের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। তাকে গ্রেপ্তার করতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে।