কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার নিমসার জুনাব আলী কলেজের অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। এই অভিযোগে অধ্যক্ষের পদত্যাগের দাবিতে বৃহস্পতিবার ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে কলেজ প্রাঙ্গণে বিক্ষোভ করেছে শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীরা জানান, কলেজের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ মামুন মিয়া মজুমদার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একাদশ শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে অনৈতিক প্রস্তাব দেয়। এই কথোপকথনের স্ক্রিনশট ছড়িয়ে পড়লে তিনি ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীকে ছাড়পত্র দেওয়ার হুমকিও দেন বলে অভিযোগ রয়েছে। 

আন্দোলনরত এক শিক্ষার্থী বলেন, অধ্যক্ষকে পদত্যাগ করতে হবে। আমাদের দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরা ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করেছি। আমাদের সুরক্ষা দেওয়ার দায়িত্ব শিক্ষকের কিন্তু তিনি এমন অনৈতিক কাজ করলে আমরা কলেজে কীভাবে আসবো। 

অধ্যক্ষের বিচার দাবিতে শিক্ষার্থীরা সকাল ১০টা থেকে বিক্ষোভ করেন। সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে বুড়িচং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা শিক্ষার্থীদের শান্ত করার চেষ্টা করেন। পরে ইউএনও অন্যান্য শিক্ষক এবং অভিভাবকদের নিয়ে বৈঠক করেন। 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হালিমা খাতুন জানান, ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগের ভিত্তিতে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ ছামিউল ইসলামকে প্রধান করে ৮ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী ৭ দিনের মধ্যে কমিটি শুনানি শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। 

অভিযোগের বিষয়ে অধ্যক্ষ মোহাম্মদ মামুন মিয়া মজুমদার জানান, কিছু লোকজন মিলে তাকে কলেজ থেকে বিতারিত করার জন্য একটি ঘটনা সাজিয়েছেন। তিনি ওই ছাত্রীকে কোন যৌন হয়রানি বা হুমকি দেননি।