আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সর্বোচ্চ দেড়শ’ আসনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করা হবে। আজ মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে ইসি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বৈঠক শেষে কমিশনের অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন। 

এর আগে সম্প্রতি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে সংলাপের প্রস্তাবসমূহ পর্যালোচনা করে ইসি তার মতামতে জানিয়েছিল, ইভিএম ব্যবহারের পক্ষে রাজনৈতিক দলগুলোর আপত্তি এবং সমর্থন দুই-ই রয়েছে। রাজনৈতিক সংলাপ ছাড়াও ইতোপূর্বে ইভিএম নিয়ে যেসব কর্মশালা, মতবিনিময়, পরীক্ষা-নিরীক্ষা হয়েছে তার সার্বিক ফলাফল বিচার-বিশ্লেষণ করে ইভিএম ব্যবহার বিষয়ে কমিশন যথাসময়ে অবহিত করবে। সেই প্রেক্ষিতে ইসি আজ ইভিএম বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানাল। 

ওই মতামতে কমিশন নির্বাচনকে অবাধ ও নিরপেক্ষ করতে সংবিধান ও আইনে প্রদত্ত ক্ষমতা সততা ও সাহসিকতার সঙ্গে প্রয়োগ করতে বদ্ধপরিকর বলেও উল্লেখ করে। 

উল্লেখ্য, নির্বাচন কমিশন গত জুলাই মাসে দেশের ৩৯টি নিবন্ধিত দলের মধ্যে ২৮টির সঙ্গে সংলাপ করেছে। ৯টি দল এই সংলাপ বর্জন করেছে। বাকি দুটি দলের সাথে সেপ্টেম্বরে সংলাপ অনুষ্ঠিত হবে।