সামরিক আমলে জারি করা ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার ফর ডায়রিয়া ডিজিস রিসার্স, বাংলাদেশ (আইসিডিডিআর,বি) অধ্যাদেশ বাতিল করে নতুন আইন করতে সংসদে বিল উঠেছে। 

মঙ্গলবার ‘আন্তর্জাতিক উদারাময় গবেষণা কেন্দ্র, বাংলাদেশ বিল-২০২২’ উত্থাপন করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। পরে বিলটি এক মাসের মধ্যে পরীক্ষা করে সংসদে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়।

১৯৭৮ সালের আইসিডিডিআর’বি সংক্রান্ত অধ্যাদেশ জারি করা হয়। উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অনুসারে সামরিক শাসন আমলে প্রণীত যেসব আইন বা অধ্যাদেশের এখনও প্রয়োজন রয়েছে, সেগুলোকে পরিমার্জন করে বাংলায় রূপান্তরের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। সে জন্য বিলটি আনা হয়েছে।

উদারাময় গবেষণা কেন্দ্রে বোর্ডের গঠন সম্পর্কে বিলে বলা হয়েছে, বোর্ডে অন্তত ১২ জন এবং অনধিক ১৭ জন সদস্য থাকবে। এরমধ্যে চার জনকে মনোনয়ন দেবে সরকার।

বিলে বলা হয়েছে, আইসিডিডিআর,বি-এর নির্বাহী পরিচালক তিন বছরের জন্য নিয়োগ পাবেন। তাকে নিয়োগ দেবে বোর্ড। এই গবেষণা কেন্দ্র কোনো পণ্য বা সেবা কিনলে তার ওপর ভ্যাট এবং সম্পূরক শুল্ক প্রযোজ্য হবে না বলে খসড়া আইনে বলা আছে। কর্মরত বিদেশিদের ওপর আয়কর এবং মূসক প্রযোজ্য হবে না।

বিলে বলা হয়েছে, গবেষণা কেন্দ্র তার গবেষণালব্ধ ফলাফল ও অন্যান্য বৈজ্ঞানিক কার্যক্রমের বিবরণ প্রকাশ ও প্রচারের ক্ষেত্রে পূর্ণ স্বাধীনতা ভোগ করবে। আইসিডিডিআর,বির উন্নয়ন ও সম্প্রসারণের জন্য সরকার নামমাত্র বা বিনা ভাড়ায় জমি ইজারা প্রদান ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা প্রদান করতে পারবে বলে খসড়া আইনে বলা হয়েছে।