ঢাকার রামপুরার বাসা থেকে ছেলেকে সিআইডি পরিচয় দিয়ে চারজন তুলে নিয়ে গেছেন বলে অভিযোগ করেছেন চিকিৎসক বাবা। এক বিবৃতিতে বাবা বলেছেন, তার ছেলে শাকির বিন ওয়ালী সদ্য এমবিবিএস পাস করেছেন।

শাকিরের বাবা এ কে এম ওয়ালী উল্লাহ চক্ষুবিশেষজ্ঞ ও সার্জন। তিনি বিবৃতিতে বলেন, ‘২ যুগ ধরে পূর্ব হাজীপাড়ার ৬৮/১ নম্বর বাসায় তিনি স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে বসবাস করছেন। গত রোববার দুপুর সিআইডি পরিচয়ে সাদা পোশাকে চার ব্যক্তি বাসায় যান। তখন তিনি বাইরে ছিলেন। তারা জিজ্ঞাসাবাদের কথা বলে শাকিরকে নিয়ে যান।’

বাবা ওয়ালী উল্লাহ আরও বলেন, ‘বিষয়টি জানার পর তিনি রামপুরা থানায় যোগাযোগ করেন। থানা থেকে বলা হয়, পুলিশ এ ব্যাপারে কিছু জানে না। সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করতে চাইলে পুলিশ সেটি নেয়নি। পুলিশ ডায়েরিতে নোট নিয়েছে।’

ওয়ালী উল্লাহ বলেন, ‘থানা থেকে ফেরার পর ওই দিনই রাত ১০টার দিকে চার থেকে পাঁচজনের দল আবার বাসায় আসে। তারা নিজেদের সিআইডির লোক বলে পরিচয় দেন। পরে শাকিরের ঘর তল্লাশি করে একটি মুঠোফোন নিয়ে যান।’

সিআইডির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) আবুল কালাম আজাদ বলেন, এ বিষয়ে খোঁজ নিয়ে পরে জানাবেন।