নতুন এক গবেষণায় উঠে এসেছে, পৃথিবীর অন্তত এক-তৃতীয়াংশ গাছের প্রজাতি বিলুপ্তির মুখে। দীর্ঘ আয়ুর গাছ হিসেবে পরিচিত ওক ও ম্যাগনোলিয়া ছাড়াও গ্রীষ্ফ্মমণ্ডলীয় বিভিন্ন গাছ এ তালিকায় রয়েছে। এতে হুমকির মুখে পড়বে মানবজাতি। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, বর্তমানে পৃথিবীতে প্রায় ৬০ হাজার গাছের প্রজাতি রয়েছে। এর মধ্যে ১৭ হাজার ৫০০ প্রজাতি, অর্থাৎ এক-তৃতীয়াংশ প্রজাতিই ঝুঁকির মুখে। বিলুপ্তপ্রায় গাছের এই সংখ্যা হুমকির মুখে থাকা স্তন্যপায়ী প্রাণী, পাখি, উভচর ও সরীসৃপ প্রজাতির মোট সংখ্যার দ্বিগুণ।

'স্টেট অব দ্য ওয়ার্ল্ডস ট্রিজ' রিপোর্টে দেখা গেছে, ৬০ হাজার প্রজাতির গাছের অন্তত ৩০ ভাগ বিলুপ্তির মুখে। এর মধ্যে ১৪২টি প্রজাতি বিলুপ্ত হয়ে গেছে। অন্যদিকে, ৪৪২টি প্রজাতি বিলুপ্তির দ্বারপ্রান্তে। এসব প্রজাতির গাছের সংখ্যা ৫০টিরও কম। বোটানিক গার্ডেন কনজারভেশন ইন্টারন্যাশনালের কর্মকর্তা ড. মালিন রিভার্স বলেন, 'বিশ্বে প্রায় ৬০ হাজার গাছের প্রজাতি রয়েছে। আমরা এখন জানি যে, এই প্রজাতির মধ্যে কোনটি সংরক্ষণের প্রয়োজন; গাছগুলোর জন্য সবচেয়ে বড় হুমকি কী এবং সেই হুমকি কোত্থেকে আসে। প্রথমবারের মতো আমরা এটি জানতে পেরেছি।'

এ অবস্থা থেকে উত্তরণে জলবায়ু পরিবর্তনের হুমকি মোকাবিলা, বন নিধন ও গাছ কাটার বিরুদ্ধে দ্রুত জরুরি পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে পরিবেশ সংরক্ষণ গোষ্ঠীগুলো।

গবেষকরা জানান, বিলুপ্তপ্রায় গাছের প্রজাতি সংরক্ষণের প্রচেষ্টাই এখন ভবিষ্যতের জন্য একমাত্র আশা। পাশাপাশি যেসব বন টিকে আছে, সেগুলো সংরক্ষণের পাশাপাশি এর আয়তন বাড়ানোর দিকে জোর দিচ্ছেন তাঁরা। এর যৌক্তিকতাও প্রমাণ করেছেন গবেষকরা। সম্প্রতি একটি সংরক্ষিত এলাকায় বিলুপ্তপ্রায় গাছের মোট প্রজাতির ৬৪ শতাংশ গাছ পাওয়া গেছে। এর পাশাপাশি গবেষকরা উদ্যান ও বীজভান্ডার তৈরিতে বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছেন। এতে করে আবারও হারিয়ে যাওয়া গাছ ফিরিয়ে আনা সম্ভব বলে আশা করেন তাঁরা। এ ছাড়া পৃথিবীর অধিকাংশ মানুষের বনায়নবিষয়ক জ্ঞানের অপ্রতুলতা রয়েছে জানিয়ে গবেষকরা এ বিষয়ক বৈজ্ঞানিক তথ্য প্রচারের দিকেও জোর দিয়েছেন।

গবেষণায় দেখা গেছে, গাছের জন্য সবচেয়ে বড় হুমকি হচ্ছে জলবায়ু পরিবর্তন, চরম আবহাওয়া ও সমুদ্রের উচ্চতা বৃদ্ধি। শুধু জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে গত ৩০০ বছরে পৃথিবীর মোট বনের ৪০ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে। ২৯টি দেশ তাদের বনের ৯০ শতাংশ হারিয়েছে। এ ছাড়া আরেক গবেষণায় দেখা গেছে, দৈনন্দিন জীবনের প্রয়োজনীয় প্রধান সাতটি পণ্য তৈরিতে বিশ্বের অর্ধেকের বেশি বন উজাড় হয়েছে। মানবজাতিকে নিশ্চিহ্ন হওয়ার হাত থেকে বাঁচাতে গাছ বাঁচিয়ে রাখতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিজ্ঞানীরা।

ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন ফর দ্য কনজারভেশন অব নেচারের গ্লোবাল ট্রি স্পেশালিস্ট গ্রুপের কো-চেয়ার সারা ওল্ডফিল্ড বলেন, 'একটি বিশুদ্ধ ও সুস্থ পৃথিবীর জন্য গাছের প্রয়োজন। একই সঙ্গে প্রয়োজন গাছের প্রজাতির মধ্যে বিচিত্রতা। পরিবেশের ওপর প্রতিটি গাছের প্রজাতির ভিন্ন ভিন্ন কার্যকরী ভূমিকা রয়েছে। গাছের যে প্রজাতিগুলো বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে, সেগুলোর অভাবে পরিবেশের ভাসসাম্য নষ্ট হতে বাধ্য। বর্তমান বিশ্বের ৩০ ভাগ গাছের প্রজাতি বিলুপ্তির হুমকির মধ্যে রয়েছে। অবিলম্বে এগুলো সংরক্ষণ করার ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।' সূত্র :দ্য গার্ডিয়ান।