রাজধানীর মিরপুর ১১ নম্বর সেকশনের প্যারিস রোড সংলগ্ন খেলার মাঠটিকে প্লট বানিয়ে বরাদ্দ দেওয়ার প্রতিবাদে অনশন করেছে স্থানীয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর শিক্ষার্থীরা। তাদের দাবি, বরাদ্দ বাতিল করে সেখানে সুন্দর করে খেলার মাঠ করে দিতে হবে, যাতে সেখানে তারা খেলাধুলা করতে পারে। 

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে শিক্ষার্থীরা অনশন শুরু করে। পরে তাদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করতে যান ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম।

তিনি খেলার মাঠে উপস্থিত হয়ে দেখেন অসংখ্য শিক্ষার্থী ও স্থানীয় জনগণ খেলার মাঠের দাবিতে অনশন করছে এবং 'মাঠ চাই, মাঠ চাই' বলে স্লোগান দিচ্ছে। এ সময় আতিকুল ইসলাম তাদের দাবির সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করে সেখানে খেলার মাঠ তৈরি করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলে শিক্ষার্থীরা অনশন ভাঙতে সম্মত হয়।

ডিএনসিসি মেয়র বলেন, ৩ নম্বর ওয়ার্ডের আওতাধীন মিরপুর ১১ নম্বর এলাকায় তিন লক্ষাধিক মানুষের বাস। ওই এলাকায় ৬০টির বেশি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে। শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার পাশাপাশি খেলাধুলা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। অথচ ওই অঞ্চলে আর খেলার মাঠ নেই। চারপাশে শুধু ভবন নির্মাণ হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, 'ড্যাপের নকশায় এটিকে উন্মুক্ত স্থান হিসেবে দেখানো আছে। অথচ জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষ ওই মাঠকে প্লট আকারে বরাদ্দ দিয়েছে। এটা মেনে নেওয়া যায় না। জনগণের স্বার্থে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে এই খেলার মাঠ পুনরুদ্ধার করব।'

এ সময় ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম রেজা, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জোবায়দুর রহমানসহ স্থানীয় কাউন্সিলর ও ডিএনসিসির শীর্ষ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি একই দাবিতে স্থানীয় বাসিন্দা ও শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন করে।

বিষয় : মাঠ রক্ষার দাবি শিক্ষার্থীদের অনশন মেয়রের আশ্বাসে ভঙ্গ

মন্তব্য করুন