গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে আরও ৫৬৮ জন দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এসময় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে চলতি বছর ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫৮ জন।

রোববার দেশের পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের নিয়মিত ডেঙ্গুবিষয়ক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে ৩৬০ জন রোগী ভর্তি হন। বাকি ২০৮ জন ঢাকার বাইরে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। বর্তমানে সারাদেশে ২ হাজার ২১০ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। তাদের মধ্যে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে ১ হাজার ৬৬০ জন এবং ৫৫০ জন ঢাকার বাইরের হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসাধীন।

চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ২ অক্টোবর পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ১৭ হাজার ২৯৫ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন। তাদের মধ্যে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১৩ হাজার ১৫৯ জন এবং ঢাকার বাইরে সারা দেশে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৪ হাজার ১৩৬ জন।

একই সময়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন মোট ১৫ হাজার ২৭ জন। তাদের মধ্যে ঢাকার হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১১ হাজার ৪৭২ জন এবং ঢাকার বাইরের হাসপাতালগুলো থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন ৩ হাজার ৫৫৫ জন।

এর আগের দিন শনিবার ডেঙ্গু আক্রান্ত ৬৩৫ জন হাসপাতালে ভর্তি হন, যা এ বছর একদিনে সর্বোচ্চ রোগী ভর্তির রেকর্ড। এ সময় ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যুর তথ্য দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য বলছে, দেশে চলতি বছর ডেঙ্গুতে ৫৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি মারা গেছে সেপ্টেম্বরে। এ মাসে ডেঙ্গুতে ৩৪ জনের মৃত্যুর তথ্য দেয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।